অশ্লীল ভিডিও প্রকাশ, ‘বাদশা ট্যাটু’ রিমান্ডে

প্রকাশিত: ৪:০৩ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১৮, ২০১৯

অশ্লীল ভিডিও প্রকাশ, ‘বাদশা ট্যাটু’ রিমান্ডে

সামাজিক যোগযোগমাধ্যম ফেসবুকে আপত্তিকর ভিডিও প্রকাশের অভিযোগে ট্যাটুকারী তরিকুল ইসলাম বাদশাহ ওরফে বাদশা ট্যাটুকে তিন দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দিয়েছেন আদালত। পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে দায়ের করা মামলায় আদালত তাকে রিমান্ড প্রদান করেন।

বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক জিয়াউর রহমান শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

মামলায় তদন্তকারী কর্মকর্তা রমনা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সজিবুজ্জামান মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তরিকুল ইসলাম বাদশাহ ওরফে বাদশা ট্যাটুকে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে আদালতে হাজির করেন। শুনানি শেষে তিন দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন বিচারক।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে নিউমার্কেট এলাকা থেকে মো. তরিকুল ইসলাম বাদশাহকে গ্রেপ্তার করে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগ।। এ সময় ভিডিওসহ তার মোবাইল ফোন, ফেসবুক আইডি ও পেজ জব্দ করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (এডিসি) নাজমুল ইসলাম জানিয়েছিলেন, একজন নারীর অর্ধ উলঙ্গ শরীরের নিম্নাংশে একজন পুরুষ বিভিন্ন রকম তামাশা ও নারীর অর্ধ উলঙ্গ শরীরে হাত দ্বারা ম্যাসেজ করে বাংলায় কুরুচিপূর্ণ কথা বলার ভিডিওটি ভাইরাল হয়। সে তার নিজস্ব ‘Tattoo Studio New market’ নামক ফেসবুক পেজ থেকে সেই অশ্লীল পর্ন ভিডিও বানিয়ে প্রকাশ করেছে, যা ব্যাপক ভাইরাল হয়।

নাজমুল ইসলাম বলেন, অনলাইনে অনেকেই এই ভিডিও শেয়ার করেছেন। অনেকেই আবার এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গড়ে তোলার কথা বলেছেন। এ ধরনের অশ্লীল অঙ্গভঙ্গিযুক্ত ভিডিও নিঃসন্দেহে নিরাপদ ইন্টারনেটের জন্য হুমকি। এ কারণেই ওই ট্যাটুকারীর বিরুদ্ধে পর্নগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে রমনা থানায় একটি মামলা হয়েছে। একই সঙ্গে ওই ভিডিওতে থাকা মেয়েটিও এই মামলার অন্যতম আসামি, তাকেও খুঁজছে পুলিশ।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Flag Counter

Ad area

 

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com