আগামী ১০ দিনের মধ্যে কমছে পেঁয়াজের দাম : বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১০:৩৯ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০১৯

আগামী ১০ দিনের মধ্যে কমছে পেঁয়াজের দাম : বাণিজ্যমন্ত্রী

সুরমা মেইল ডেস্ক : রাজধানীতে ব্যবসায়ীদের এক অনুষ্ঠানে বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি দেশবাসীকে আশ্বস্ত করে বলেছেন, আগামী ১০ দিনের মধ্যে পেঁয়াজের দাম কমবে। দেশী পেঁয়াজের আগমন বা বিদেশ থেকে উড়োজাহাজে করে আমদানি করেও পেঁয়াজের  পাইকারি ও খুচরা বাজারে অস্থিরতা কাটছেই না।

 

শনিবার (২৩ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে বাংলাদেশ চেম্বার অব ইন্ডাস্ট্রিজ (বিসিআই) আয়োজিত এক সেমিনারে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে টিপু মুনশি বলেন, ‘বিমানে করে পেঁয়াজ আনা হচ্ছে। মিশর বা তুরস্ক থেকে যে পেঁয়াজ আসছে সেটি ১২০ টাকা আর আমাদের দেশি পেঁয়াজ ১৪০-১৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে, কোনো মানুষ যদি বলে বাজারে পেঁয়াজ ১৮০ বা ২০০ সেটি কিন্তু নিউজ নয়।

 

এদিকে, শনিবার সিলেটের পাইকারী বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে কেজি প্রতি ১৫০ থেকে ১৮০ টাকায়। আর রাজধানীর খুচরা বাজারগুলোতে পেঁয়াজ কেজি প্রতি বিক্রি হচ্ছে ১৮০ থেকে ২১০ টাকা।

 

নতুন করে দাম বাড়ার জন্য সরবরাহ কম থাকাকে দায়ী করছেন ব্যবসায়ীরা। খুচরা ব্যবসায়ীরা বলছেন, পাইকারি বাজারে দাম বেশি থাকায় পেঁয়াজ বিক্রিতে আগ্রহ কম তাদের।

 

এ অবস্থায় রাজধানীতে ব্যবসায়ীদের এক অনুষ্ঠানে বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি দেশবাসীকে আশ্বস্ত করে বলেছেন,  আগামী ১০ দিনের মধ্যে পেঁয়াজের দাম কমবে।

 

মন্ত্রী জানান, আমাদের পেঁয়াজের চাহিদার ২৫ শতাংশ আমদানি করতে হয়। এ ২৫ শতাংশের ৯০ ভাগ পেঁয়াজ আসত ভারত থেকে। গত ২৯ সেপ্টেম্বর ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেয়। আমরা পুরোপুরি একটি দেশের ওপর নির্ভরশীল ছিলাম।  ভারত পেঁয়াজ বন্ধ করে দেওয়ায় আমাদের বিপদ হয়েছে।

 

তিনি আরও বলেন, সেপ্টেম্বর, অক্টোবর ও নভেম্বর ১ লাখ মেট্রিক টন করে পেঁয়াজ আমদানি হতো। সেখানে সেপ্টেম্বরে পেঁয়াজ এসেছে ২৫ হাজার টন, অক্টোবরে ২৪ হাজার টন। অর্থাৎ আমদানি কম হয়েছে। এখন আমাদের দেশী  পেঁয়াজ বাজারে আসতে শুরু করেছে।

 

মন্ত্রী বলেন, ‘মিশর থেকে বড় চালান নিয়ে জাহাজ ছেড়েছে। আশা করছি, ২৯ নভেম্বরের মধ্যে চট্টগ্রাম বন্দরে অন্তত ১২ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ পৌঁছে যাবে।’

 

বাণিজ্যমন্ত্রী আরো জানান, ‘মিয়ানমারে পেঁয়াজের আজকের বাজার ১৫০ টাকা কেজি, ভারতে ১০০ টাকা অর্থাৎ বিশ্বব্যাপী পেঁয়াজের দাম বেড়েছে।’

 

এ  অবস্থায় বিমানে করে  আমদানি করা ২০০ টাকা দরের  পেঁয়াজ  আমরা টিসিবি’র মাধ্যমে ৪৫ টাকা দরে বিক্রি করছি। আর বেশি সময় নয়,  আশা করছি,  ১০ দিনের মধ্যে আমাদের দেশে উৎপাদিত  সমস্ত পেঁয়াজ মাঠ থেকে সংগ্রহ হয়ে যাবে। অর্থাৎ ১০ দিনের মধ্যে দাম কমে যাবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com