উন্মুক্ত সিলেটের পর্যটনকেন্দ্রগুলো: উৎফুল্ল ব্যবসায়ী ও বিনোদন প্রেমীরা

প্রকাশিত: ১:৩০ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২০, ২০২১

উন্মুক্ত সিলেটের পর্যটনকেন্দ্রগুলো: উৎফুল্ল ব্যবসায়ী ও বিনোদন প্রেমীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়াইনঘাট : প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর সিলেট। সবুজাভ প্রকৃতিকে কাজে লাগিয়ে দেশী-বিদেশী উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগে গড়ে তোলা হয়েছে ছোট-বড় পর্যটন স্পট। স্থানীয় অর্থনীতির অন্যতম খাত এখন সিলেটের পর্যটন শিল্প। কিন্তু ঊর্ধ্বগামী পর্যটন শিল্পের বিকাশে কামড় বসায় করোনা। এতে মাথায় হাত উঠে বিনিয়োগকারীদের। সেই সাথে এ শিল্পের সাথে জড়িতদের জীবন জীবিকা পড়ে হুমকির মুখে।

 

অবশেষে বৃহস্পতিবার (১৯ আগস্ট) থেকে সিলেট জেলার সকল হোটেল-মোটেল রিসোর্টসহ সকল পর্যটন কেন্দ্রগুলো উন্মুক্ত হওয়ার খবরে সংশ্লিষ্টদের মধ্যে সঞ্চার ঘটেছে নতুন আশার।

 

একই সাথে সংশ্লিষ্টরা হাত খুলে নেমে পড়েছেন পর্যটক বান্ধব পরিবেশ ঘষে মেজে পরিষ্কারে।

 

এছাড়া নগরীর বিভিন্ন আবাসিক হোটেল মোটেল গেস্ট হাউস ঘুরে দেখা গেছে, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নের। অতিথিদের উপভোগ্য করে তোলতে সকল ধরণের প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা। পর্যটন কেন্দ্র খোলার খবরে উৎফুল্ল ভাব ছড়িয়ে পড়েছে বিনোদন প্রেমীদের মনে।

 

আরও পড়ুন : দীর্ঘদিন পর খুলছে সিলেটের সব পর্যটন কেন্দ্র

 

ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, দীর্ঘ সাড়ে ৪ মাস পর সিলেটের পর্যটন কেন্দ্রসহ হোটেল-মোটেল, গেস্ট হাউস বন্ধ থাকায় বিপুল পরিমাণ ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন তারা। এবার সব কিছু খুলে দেয়ায় সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানিয়ে সরকারি বিধিনিষেধ মেনে ব্যবসা পরিচালনা করার অঙ্গিকার করেন ব্যবসায়ীরা। সিলেটের সকল পর্যটন কেন্দ্র খুলে দেয়ায় পর্যটকেরা বেড়াতে আসলে পর্যটন ব্যবসায়ীরা তাদের দৈনন্দিন খরচগুলো তুলতে সক্ষম হবে বলে আশা করছেন।

এর আগে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় গত বছরের ১৮ মার্চ সিলেটের সব পর্যটন স্পট বন্ধের ঘোষণা দেয় জেলা প্রশাসন। এর ছয়মাস পর গত ৯ সেপ্টেম্বর ২৫ শর্তে এসব পর্যটন কেন্দ্র ও রিসোর্ট সেন্টার খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। এরপর আবার গত গত ১ এপ্রিল থেকে সিলেটের সকল পর্যটন কেন্দ্রে নির্দেশনা দেয়া হয় বন্ধ রাখার। এই নির্দেশনার পরপরই বন্ধ হয়ে যায় সিলেটের সকল পর্যটনকেন্দ্র ও হোটেল-মোটেল ও গেস্ট হাউস।

 

এদিকে, করোনা সংক্রমণ কিছুটা কমে যাওয়ায় লকডাউন তুলে দেওয়া এবং জনজীবনের আর্থিক অবস্থার কথা বিবেচনায় বৃহস্পতিবার (১৯ আগস্ট) থেকে শর্তসাপেক্ষে সিলেটের সকল পর্যটনকেন্দ্র ও হোটেল-মোটেল ও গেস্ট হাউস খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

 

প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলেছেন, সরকারি নির্দেশনায় শর্তসাপেক্ষে সীমিত পরিসরে বৃহস্পতিবার থেকে জেলার সকল পর্যটন কেন্দ্র ও হোটেল মোটেল এবং গেস্ট হাউস উন্মুক্ত করে দেওয়া হচ্ছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে পর্যটকরা পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে ভ্রমণ করতে পারবে এবং অবশ্যই সরকারি নির্দেশনা মেনে চলতে হবে জনসাধারণকে। পর্যটকদের সরকারি নির্দেশাবলীর প্রতি দিতে হবে বিশেষ গুরুত্ব। পর্যটনকেন্দ্র ও হোটেল মোটেলে অবস্থানরত পর্যটকদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক পরিধান করে করতে হবে চলাচল।

 

বৃহস্পতিবার সরেজমিনে গোয়াইনঘাটের পর্যটন এলাকা জাফলং ও বিছানাকান্দির দু’একটি স্পট ঘুরে দেখা যায়, চলমান বৈরী আবহাওয়া আর রিমঝিম বৃষ্টি উপেক্ষা করে পর্যটন এলাকার ব্যবসায়ীরা সকল ধরনের দোকানপাট খুলেছেন এবং পর্যটকসহ স্থানীয় ব্যাবসায়ীদের মাঝে স্বস্থির নিঃশ্বাস ফিরে এসেছে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com