কানাইঘাটে ভাই-ভাতিজাদের হাতে বড় ভাই হেনেস্তার শিকার

প্রকাশিত: ৭:৫২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১, ২০২১

কানাইঘাটে ভাই-ভাতিজাদের হাতে বড় ভাই হেনেস্তার শিকার

কানাইঘাট প্রতিনিধি : সিলেটের কানাইঘাট বড়চতুল ইউনিয়নের বড়চতুল গ্রামে জমি সংক্রান্ত ও পারিবারিক বিরোধের জের ধরে আপন ভাই ভাতিজার হাতে বড় ভাই আব্দুল হেকিম (৬৫) বার বার হেনেস্তার শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

 

অভিযোগে জানা যায়, পূর্ব বিরোধের জের ধরে গত শুক্রবার (৩০ জুলাই) সকাল ১১টার দিকে আব্দুল হেকিমের নাতি মাহফুজুর রহমান শাওন (১৩) ও মেহেদী আল হাসান (১০) বসত-বাড়ির পুকুরে গোসল করতে গেলে আব্দুল জলিলের পুত্র জামাল, কামাল, আবুল বাশার তাদের মারধর করে তাড়িয়ে দেয়।

 

এ সময় পুকুর ঘাটে আব্দুল হেকিমের পরিবারের ধৌত করার জন্য রাখা তালা-বাসনসহ রান্নার কাজের বিভিন্ন জিনিসপত্র ভাংচুর করে তারা। এমন কি তালা-বাসন ভাংচুর করে আব্দুল জলিলের ছেলেরা আব্দুল হেকিমের বসত ঘরে ঢুকে তিনি সহ তার পরিবারের সদস্যদের মারধরের চেষ্টা করে বিভিন্ন আসবাবপত্রের ক্ষয়ক্ষতি সাধন করে। এসব অভিযোগ এনে আব্দুল হেকিম বাদী হয়ে তার ছোট ভাই আব্দুল জলিল ও তার তিন ছেলের বিরোদ্ধে কানাইঘাট থানায় গত শুক্রবার রাতে অভিযোগ দায়ের করেন।

 

অভিযোগের প্রেক্ষিতে থানার এসআই সজল দাস শনিবার (৩১ জুলাই) দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

 

আব্দুল হেকিমের অভিযোগ থানা পুলিশ অভিযোগের তদন্ত করার পরদিন রোববার (০১ আগস্ট) দুপুর ১২টার দিকে আব্দুল জলিল ও তার ছেলেদের নিয়ে বড় ভাই আব্দুল হেকিমের বাড়ির পাশে দখলীয় একখন্ড ফসলী জমি ট্রাক্টর দিয়ে হাল চাষ করে জবর দখলের চেষ্টা করে।

 

বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ফসলী জমিটির ছবি তুলার জন্য আব্দুল হেকিমের স্ত্রী সোনাবান বেগম ও তার মেয়ে রুনা বেগম সেখানে গেলে এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আব্দুল জলিল ও তার ছেলেরা সোনাবান বেগমসহ তার মেয়েকে মারধর করার জন্য দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে এগিয়ে আসে।

 

একপর্যায়ে স্থানীয় কিছু লোকজন মা ও মেয়েকে হামলাকারীদের কবল থেকে উদ্ধার করে গ্রামের আবুলের বসত বাড়ীতে এনে নিরাপদে রাখলেও হামলাকারীরা তাদের দেখে নেওয়ার জন্য দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাদের বাড়ীর আশপাশ এলাকায় অবস্থান করছে বলে আব্দুল হেকিম জানিয়েছেন। বিষয়টি থানা পুলিশকে আব্দুল হেকিম অবহিত করেছে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com