কুলাউড়া পৌরসভার বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে আবারও ‘বহিষ্কার’

প্রকাশিত: ৫:২৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৭, ২০২১

কুলাউড়া পৌরসভার বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে আবারও ‘বহিষ্কার’

কুলাউড়া প্রতিনিধি : ২০১৫ সালে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া পৌরসভার মেয়র পদে মনোনয়ন না পেয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হন শফি আলম ইউনুছ। নৌকা ডুবিয়ে জয়লাভ করেন তিনি। ওই সময় বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে বহিষ্কার করা হয় তাকে। এতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য পদ হারান। পরে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর সাধারণ ক্ষমায় রক্ষা পায় ‘প্রাথমিক সদস্যপদ’।

 

কিন্তু এবারও পৌর নির্বাচনে একই পথে হাঁটলেন মেয়র শফি আলম ইউনুছ। গেল নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ার অপরাধে সাংগঠনিক কঠোর শাস্তির সিদ্ধান্তে এবার আওয়ামী লীগ মনোনয়ন দেয়নি তাকে। মনোনয়ন না পেয়ে দলের সিদ্ধান্তের তোয়াক্কা না করে ফের কুলাউড়া পৌরসভায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হলেন ইউনুছ। এতে আর রক্ষা হলো না দলের প্রাথমিক সদস্যপদের। কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সংবাদ সম্মেলন করে জানিয়ে দিয়েছে, শফি আলম ইউনুছকে প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার (০৭ জানুয়ারী) দুপুরে কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন করে বহিষ্কারের বিষয়টি জানান উপজেলা আওয়ামী লীগের মুখপাত্র আসম কামরুল ইসলাম।

 

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় এক নেতার সূত্রে জানা যায়, পৌরসভা নির্বাচনে বিদ্রোহীদের নিয়ে হার্ডলাইনে আওয়ামী লীগ। দলের পদ-পদবীতে থেকে নৌকার বিরুদ্ধে যারাই ‘স্বতন্ত্র’ প্রার্থীর নামে বিদ্রোহী হবে তাদেরকে দল থেকে সারাজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হবে। বিগত স্থানীয় সরকার নির্বাচনে বিদ্রোহীদের সাধারণ ক্ষমা করা হলেও এখন সেই সুযোগ থাকছে না বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

 

এদিকে সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা আলীগের সাধারণ সম্পাদক আসম কামরুল ইসলাম জানান, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী না হওয়ার জন্য একাধিকবার শফি আলম ইউনুছকে বলা হয়েছে। তবুও তিনি বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com