কৃষিকাজে সেনাবাহিনী নামাচ্ছে শ্রীলঙ্কা

প্রকাশিত: ৫:০৫ অপরাহ্ণ, জুন ২০, ২০২২

কৃষিকাজে সেনাবাহিনী নামাচ্ছে শ্রীলঙ্কা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
শ্রীলঙ্কায় তীব্র খাদ্য সংকট মোকাবিলায় সেনাবাহিনীকে চাষাবাদে নামার নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে।

 

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম নিউজফার্স্ট বলছে, দেশটির উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে এবং ভবিষ্যৎ খাদ্য ঘাটতি এড়াতে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন অনুর্বর জমি চাষাবাদে নামছে শ্রীলঙ্কার সেনাবাহিনী।

 

নতুন এই কৃষি কর্মসূচির আওতায় চলতি মৌসুমে দেড় হাজার একরের বেশি অনুর্বর এবং পরিত্যক্ত জমি চাষাবাদ করবে সেনাবাহিনী। জুলাই মাসের প্রথম দিকে সেনাবাহিনীর ওই প্রকল্প শুরু হবে।

 

অত্যন্ত জরুরি এই প্রকল্পে নেতৃত্ব দেবেন সেনাবাহিনীর কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল ভিকুম লিয়ানাগে। পুরো প্রকল্প তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে থাকবেন সেনাবাহিনীর চিফ অব স্টাফ মেজর জেনারেল জগথ কোডিথুওয়াক্ক।

 

বৃহস্পতিবার সেনাবাহিনীর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সৈন্যরা প্রথমে কৃষি বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে পরামর্শ করে নির্বাচিত কিছু বীজ বপণ। চাষের জন্য আগাছা পরিষ্কার এবং মাটি প্রস্তুত করবেন।

 

সব নিরাপত্তা বাহিনীর সদর দপ্তর এবং আঞ্চলিক স্তরের কার্যালয় থেকে এই কাজে নিযুক্ত হওয়ার জন্য তাদের সম্ভাব্যতা যাচাই করা হচ্ছে।

 

চলমান সংকটে খাদ্য নিরাপত্তা কর্মসূচির সম্পূরক হিসাবে সেনাবাহিনী এদিন গ্রিন এগ্রিকালচার স্টিয়ারিং কমিটি (জিএএসসি) গঠন করেছে।

 

নতুন এ কর্মসূচির দায়িত্বে থাকবেন সেনাবাহিনীর কৃষি ও পশুসম্পদ ইউনিট। ২০২১ সালে ৭ জানুয়ারি সেনাবাহিনীতে নতুন এ ইউনিট সংযুক্ত করেন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া। ১৯৪৮ সালে ব্রিটেনের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভের পর এই প্রথম সবচেয়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটের মুখোমুখি হয়েছে শ্রীলঙ্কা।

 

এই সংকট কাটাতে দেশটির ক্ষমতাসীন সরকার বিশ্বের বন্ধু রাষ্ট্রগুলোর কাছে সহায়তা চেয়েছে। বৃহস্পতিবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে বলেছেন, চালের দামের অস্বাভাবিক বৃদ্ধি ঠেকাতে ভারত থেকে ৫০ হাজার মেট্রিক টন চাল আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে শ্রীলঙ্কা।


সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com