সিলেটে ইউপি নির্বাচন: ৩৮ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যারা

প্রকাশিত: ১২:৩৪ অপরাহ্ণ, মে ৮, ২০১৬

সিলেটে ইউপি নির্বাচন: ৩৮ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যারা

download

সুরমা মেইল নিউজ : চতুর্থ ধাপে সিলেটে ৫টি উপজেলায় ৩৮টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে দক্ষিণ সুরমা উপজেলায় ৭, গোলাপগঞ্জে ১১, বিশ্বনাথে ৬, মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলায় ৬ ও রাজনগরে ৮টি ইউনিয়ন রয়েছে।  গতকাল শনিবার অনুষ্ঠিব্য ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ১৬, বিএনপি ১১ ও ১১টি ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন।

দক্ষিণ সুরমা: সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলায় ৭ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে বিএনপি ৩, আ.লীগ ২ ও সতন্ত্র ২টিতে বিজয়ী হয়েছেন।

দক্ষিণ সুরমার সিলাম ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ইকরাম হোসেন বকস, মোগলাবাজার ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ফখরুল ইসলাম, দাউদপুর ইউনিয়নে বিএনপি প্রার্থী খলিলুর রহমান, কুচাই ইউনিয়নে বিএনপি প্রার্থী আবুল কালাম, জালালপুর ইউনিয়নে সতন্ত্র প্রার্থী মাওলানা সোলেমান হোসেন, লালাবাজার ইউনিয়নে সতন্ত্র প্রার্থী পীর ইকবাল ও বরইকান্দি ইউনিয়নে হাবিব হোসেন চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন।

গোলাপগঞ্জ: ওই উপজেলায় ১১টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে আওয়ামী লীগ আওয়ামী লীগ ২, বিএনপি ৪, স্বতন্ত্র ৫টি ইউনিয়নে বিজয়ী হয়েছেন। বিজয়ীরা হলেন- ১ নং বাঘা ইউপিতে আনারস প্রতীক নিয়ে ২৮২৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী ছানা মিয়া। তার নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী চশমা প্রতীক নিয়ে আতাউর রহমান পেয়েছেন ১৫৯০ ভোট। ২ নং গোলাপগঞ্জ সদর ইউপিতে বিএনপি প্রার্থী আশফাক আহমদ চৌধুরী  বিজয়ী হয়েছেন। তিনি মোট ২০৯৬ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী আব্দুস সামাদ আনারস প্রতীক নিয়ে ১৯৯৭ ভোট পেয়েছেন।

৩ নং ফুলবাড়ি ইউপিতে বিএনপি প্রার্থী মাহবুবুর রহমান ফয়সাল ৭২৬৪ পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থী আব্দুল হামিদ খান পেয়েছেন ৫১৫২ ভোট। ৪ নং লক্ষিপাশা ইউপিতে কবির আহমদ স্বতন্ত্র ৪৪৩৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটত প্রতিদ্ব›দ্বী মাহমুদ আহমদ ৩৮৭৪ ভোট পেয়েছেন।  ৫ নং বুধবাড়ি বাজার মো স্বতন্ত্র প্রার্থী মোস্তাফ উদ্দিন ১৭৯৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী  বিএনপি প্রার্থী মো. হেলাল উদ্দিন ১৪৬৮ ভোট পেয়েছেন।  ৬ নং ঢাকা দক্ষিণ ইউপিতে জামায়াত প্রার্থী শেখ মো. আব্দুর রহিম ৪৩৩৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী বিএনপির প্রার্থী মনিরুজ্জামান উজ্জল ৩০১২ ভোট পেয়েছেন। ৭ নং লক্ষ্যণাবন্দ ইউপিতে বিএনপির প্রার্থী নাসিরুল হক শাহীন ৫৪৭৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রার্থী খলকুর রহমান ৫১০১ ভোট পেয়েছেন।  ৮নং বাদেশর ইউপি বিএনপির বিলাল আহমদ ৫৩৪৩, তার নিকটতম প্রার্থী শহীধ আহমদ লালা ৪৫৪৩ ভোট পেয়েছেন।  ৯ নং আমুড়া ইউপিতে বিএনপির বিদ্রোহী রুহেল আহমদ ২০৮১ পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটকম প্রার্থী আওয়ামী লীগের মঈন উদ্দিন পেয়েছেন ১৯৭০ ভোট।  ১০ নং উত্তর বাদেপাশা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোস্তাক আহমদ ৫২৬১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রার্থী বিএনপির বিদ্রোহী মুহিবুর রহমান পেয়েছেন ৫১২৯ ভোট। ১১ নং শরিফগঞ্জ ইউপিতে আওয়ামী লীগ প্রার্থী এমএ মুহিত হিরা ২৫৯০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিটকতম জামায়াত প্রার্থী মো. আতিকুর রহমান ২৫০২ ভোট পেয়েছেন।

বিশ্বনাথ: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ ৩, বিএনপি ৩টি ইউনিয়নে বিজয়ী হয়েছে। দু’দলেরই দু’জন বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছেন।

বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী ছয়ফুল হক, রামপাশা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থী অ্যাডভোকেট আলমগীর হোসেন, দৌলতপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আমির আলী, লামাকাজি ইউনিয়নে বিএনপি প্রার্থী কবির হোসেন ধলা মিয়া, খাজাঞ্চি ইউনিয়নে বিএনপি প্রার্থী গিয়াস উদ্দিন এবং অলংকারী ইউনিয়নে  নাজমুল ইসলাম রুহেল বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তবে বিশ্বনাথ উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন হলেও সীমানা নির্ধারণ জটিলতায় দু’টি ইউনিয়ন দশঘর ও দেওকলস ইউনিয়নে নির্বাচন স্থগিত রয়েছে।

কুলাউড়া: মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার ৬ ইউনিয়নের মধ্যে ৩টিতে স্বতন্ত্র, ২টিতে আওয়ামী লীগ ও ১টিতে বিএনপি প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন।

বিভিন্ন কেন্দ্রে প্রার্থীদের নির্বাচনী এজেন্টদের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী বিজয়ী হলেন- হাজীপুর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল বাছিত বাচ্চু, শরীফপুর ইউনিয়নে বিএনপির প্রার্থী জুনাব আলী, কর্মধা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থী এম.এ রহমান আতিক, পৃথিমপাশা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী নবাব আলী বাকর খান হাসনাইন, ভাটেরা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সৈয়দ এ.কে.এম নজরুল ইসলাম ও টিলাগাঁও ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল মালিক।

রাজনগর: মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে শনিবার নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এসব ইউনিয়নের মধ্যে ৭টিই রয়েছে আওয়ামী লীগের দখলে। তবে এর মধ্যে ৪টিতে জয় পেয়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থীরা। অপর ৩টিতে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা। এ উপজেলায় বিএনপির কোনো প্রার্থী জয়ের দেখা পাননি। তবে একটি ইউনিয়নের বিজয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী।

বেসরকারি ফলাফল অনুযায়ী বিজয়ীরা হলেন- উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নকুল চন্দ্র দাশ, মুন্সিবাজার ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের ছালেক মিয়া, কামারচাক ইউনিয়নে নাজমুল হক সেলিম ও মনসুরনগর ইউনিয়নে মিলন বকস। দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিজয়ী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহীরা হলেন- উত্তরভাগ ইউনিয়নে শাহ সাহিদুজ্জামান ছালিক, পাঁচগাঁও ইউনিয়নে সামসুননুর আহমদ আজাদ ও টেংরা ইউনিয়নে টিপু খান। এছাড়া দলনিরোপেক্ষ প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে লড়াই করে বিজয়ী হয়েছেন রাজনগর সদর ইউনিয়নের দেওয়ান খায়রুল মজিদ ছালেক।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com