জামানত হারানো সেই ‘বিদ্রোহী’ এবার নৌকার প্রার্থী

প্রকাশিত: ২:৩৭ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৭, ২০২১

জামানত হারানো সেই ‘বিদ্রোহী’ এবার নৌকার প্রার্থী

কুলাউড়া প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার কাদিপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন ছালিক আহমেদ। গত নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে ১১৩ ভোট পেয়ে জামানত হারিয়েছিলেন। এ নিয়ে এলাকায় আলোচনা-সমালোচনা চলছে।

 

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) বিকেলে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ডের ফেসবুক পেজে কুলাউড়ার ১৩ ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হয়।

 

এর আগে সোমবার (২৫ অক্টোবর) বিকেল পাঁচটা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত গণভবনে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।


।আরও পড়ুন


দলীয় ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কাদিপুর ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী হিসেবে জেলা কৃষক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাফর আহমদ গিলমান, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি বদরুল ইসলাম বদর এবং কাদিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছালিক আহমেদের নাম কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছিল।

 

ছালিক আহমেদ বলেন, দল এবং নেত্রী আমাকে প্রার্থী করেছেন, আমি নিশ্চিত জয়ী হব। গতবার স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেও আমি নৌকার প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছি। কেউ কেউ আমার বিরুদ্ধে সমালোচনা শুরুও করেছেন।

 

হতাশা প্রকাশ করে জেলা কৃষক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাফর আহমেদ গিলমান বলেন, এটা কাম্য নয়। উপজেলা আওয়ামী লীগ ও ইউনিয়নের নেতা-কর্মীরাও হতাশ। প্রার্থী বদল হবে বলে আশা করছি।

 

মনোনয়নপ্রত্যাশী বদরুল ইসলাম বদর বলেন, তৃণমূল থেকে আওয়ামী ঘরোনার রাজনীতি করে আসছি। গত নির্বাচনেও নৌকার মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলাম। স্বাভাবিকভাবে হতাশ। তবে দল ও নেত্রীর সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছি। নৌকার প্রার্থীর পক্ষে কাজ করে যাব।

 

কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম রেনু বলেন, তিনজনের নাম কেন্দ্রে পাঠাতে হয়, তাই বাধ্য হয়ে অন্য দুই প্রার্থীর সঙ্গে ছালিক আহমেদের নামও দিতে হয়েছে। তবে নৌকা নিয়ে জয়ী হতে পারবেন এমন প্রার্থীরা হাইকমান্ডে যোগাযোগ করছেন। আশা করছি, দ্রুত যোগ্য প্রার্থী মনোনীত হবেন, নৌকা এখানে যোগ্য প্রার্থী পাবে।

 

উল্লেখ্য, আগামী ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপে কুলাউড়ার ১৩ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন কমিশনের তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিল করা যাবে দুই নভেম্বর পর্যন্ত। প্রার্থীতা যাচাই-বাছাই চার নভেম্বর ও প্রত্যাহারের শেষ সময় ১১ নভেম্বর।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com