জুয়াড়ি-ছিনতাইকারীদের থেকে মুক্ত কারা কোয়ার্টার, ‘হাতুড়ি’ তোমাকে ধন্যবাদ

প্রকাশিত: ২:০৫ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ৪, ২০২১

জুয়াড়ি-ছিনতাইকারীদের থেকে মুক্ত কারা কোয়ার্টার, ‘হাতুড়ি’ তোমাকে ধন্যবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক : গত ২৪ ফেব্রুয়ারি (বুধবার) রাতে অফিসের কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে সিলেট নগরীর সন্ধ্যা বাজারস্থ কারারক্ষীদের পরিত্যক্ত কোয়ার্টারের সামনে ‘সুরমা মেইল ডটকম’র সম্পাদক মণ্ডলীর সভাপতি ও জাতীয় দৈনিক ‘আমাদের কণ্ঠ’ পত্রিকার সিলেট ব্যুরো চিফ সাংবাদিক মোহাম্মদ হানিফকে ধারালো অস্ত্রের মূখে জিম্মি করে নগদ ২০ হাজার ছিনিয়ে নিয়েছে ছিনতাইকারীরা।

 

এসময় জনতার দাওয়া খেয়ে নগদ টাকা নিয়ে মিজান নামে এক ছিনতাইকারী পালিয়ে গেলেও কালা শফিক ও ডালিম উরফে তীর ডালিম নামের দুই ছিনতাইকারীকে গণধোলাই দেয় পথচারীরা। গণধোলাইয়ের এক পর্যায়ে তারাও দৌড়ে পালিয়ে যায়। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পুলিশ।

 

পরে ওই রাতেই এসএমপির কোতোয়ালী থানায় উল্লেখিত তিন ছিনতাইকারীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন সাংবাদিক হানিফ। তবে, এঘটনায় এখনো কোনো আসামি ধরা পড়েনি। উল্টো আসামিদের বাহিনী ধারা হত্যার হুমকি পেয়েছেন হানিফ।

 

এ সম্পর্কি সংবাদ

 

এদিকে, রাতেই পরিত্যক্ত কারারক্ষিদের কোয়ার্টারে ভিতরে গড়ে ওঠা অবৈধ মাদক, জুয়াড়ি, পতিতা ও ছিনতাইকারীদের আস্তানা স্থানীয়দের সহযোগীতায় ‘হাতুড়ি’ নিয়ে তাড়া করে ভেঙ্গে দেন সাংবাদিক হানিফ। প্রাণ ভয়ে পালিয়ে যায় অসামাজিক কাযে জড়িতরা। মুক্ত হয়েছে ওই এলাকা।

জুয়াড়ি-ছিনতাইকারীদের থেকে মুক্ত কারা কোয়ার্টার, ‘হাতুড়ি’ তোমাকে ধন্যবাদ

এরপর থেকে স্থানীয় ব্যবসায়ীসহ বসবাসকারীদের প্রসংশায় ভাসছেন সাংবাদিক মোহাম্মদ হানিফ। অনেকে বলছেন- তাঁর সাহসীকতায় আজ এই পরিত্যক্ত কারা কোয়ার্টারে কোনো মাদক, জুয়া, নারীবাজী ও ছিনতাইকারীদের আড্ডাসহ অসামাজিক কার্যকলাপ দেখা যায় না। ছিনতাইকারীদের আস্তানা ভেঙ্গে দেওয়ায় আজ আমরা মুক্ত হয়ে এই এলাকায় নির্ভয়ে চলাচল করতে পারছি।

 

এ প্রসঙ্গ নিয়ে বুধবার (০৩ মার্চ) ‘মোহনা টেলিভিশন’র সিলেট ব্যুরো চিফ শিপার চৌধুরী তাঁর নিজ ফেসবুক আইডিতে ‘হাতুড়ি তোমাকে অসংখ্য ধন্যবাদ’ শিরোনামে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। যা পাঠকদের সুবিধার্থে হুবহু তুলে ধরা হলো…..

 

প্রিয় “হাতুড়ি” তোমাকে অসংখ্য ধন্যবাদ, বন্দরবাজার এলাকার মানুষের দীর্ঘদিনের প্রতিক্ষার অবসান ঘটেছে তোমার মাধ্যমে। যেখানে জেল কর্তৃপক্ষকে বার বার অবহিত করেও কোন ফলপ্রসূ রেজাল্ট আসেনি।

 

উল্লেখ্য, সিলেট নগরীর বন্দর বাজারস্থ রংমহল টাওয়ারের পাশে জেলের পরিত্যক্ত বিল্ডিংয়ে তীর নামক জুয়া, মদ, গাঁজা, হেরোইন সেবন এমনকি পতিতা পর্যন্ত ব্যবসা চলে। পথযাত্রীদের বিভিন্ন রকম হয়রানির সম্মুখীন হতে হতো প্রতিমুহূর্তে। সিলেটের প্রশাসন ও জনগণসহ যা উৎখাত করতে পারেনি, তা উৎখাত করতে পেরেছেন সাহসী সাংবাদিক- পাঠকপ্রিয় ‘সুরমা মেইল ডটকম’র সম্পাদক মণ্ডলীর সভাপতি, দৈনিক আমাদের কন্ঠ’র সিলেট ব্যুরো চিফ মোহাম্মদ হানিফ।

 

বিভিন্ন সময়ে এই এলাকায় নির্যাতিত মানুষেরা বিভিন্ন উপায়ে সাংবাদিক হানিফকে অভিনন্দন ও দোয়া জানিয়েছেন এমন একটি সাহসী উদ্যোগের জন্য। কিন্তু অবাক কন্ঠে বলতে হচ্ছে জুয়াড়িরা সাংবাদিক হানিফকে ছিনতাই করে ক্ষ্যন্ত হয়নি তারা তাকে প্রাণ-নাশেরও হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।

 

এ বিষয়ে সাংবাদিক হানিফের সাথে আলাপ-কালে জানা যায়, এই সকল অপকর্মের প্রতিবাদ করায় সন্ত্রাসীরা তাকে ছুরি ধরে ছিনতাই করে তার সাথে থাকা টাকা পয়সা নিয়ে পালিয়ে যায়। তিনি আইনের আশ্রয় নেয়ার কারনে ছিনতাইকারীদের সহযোগী সন্ত্রাসী বাহীনি তাকে প্রানে মারার হুমকি দেয়। তবুও তিনি অটল মরতে হয় মরবো কিন্তু এখানে তীর নামক জুয়া, মদ, পতিতা এগুলো হতে দেবোনা। এই ঘটনায় কোতোয়ালি মডেল থানায় দ্রুত বিচার আইনে একটি মামলা হয়- যার নাম্বার ৭৬/২১।

 

এবিষয়ে কোতোয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, বেশ কিছু মৌখিক অভিযোগ পেয়ে কয়েকবার অভিযান দিয়ে কয়েকজনকে আদালতে পাঠিয়েছি কিন্তু আইনি ফাক ফুকরে কম সময়ে ওরা আবার বের হয়ে তাদের কার্যক্রম শুরু করে দেয়। তবে এইবার সাহসী সাংবাদিক হানিফের অভিযোগের ভিত্তিতে দ্রুত বিচার আইনে মামলা নিয়ে তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে শাস্তির ব্যবস্হা করা হবে। যাতে তারা ভবিষ্যৎ শিক্ষা নিয়ে বের হতে পারে।

 

আরেকটি বিষয় জেনে বিস্মিত- বেশ কিছু তদবির এসেছে ছিনতাইকারীদের পক্ষে যাতে মামলাটি আমলে যেন নেওয়া না হয়। শেষমেশ যখন মামলা রেকর্ড হয়ে গেলো তখন হানিফের কাছে কয়েকজন সাংবাদিক ও বেশ কিছু নেতা নামধারী লোক অনুরোধ জানালেন আপোষ মিমাংসার জন্য।

 

এবিষয়ে এলাকাবাসী জানান, আমরা মুক্ত হয়েছি এমন অসহনীয় পরিস্থিতি থেকে একজন সাহসী সাংবাদিক হানিফ সাহেবের কারনে, মহান আল্লাহতালা তাকে সুস্থতার সাথে নিরাপদে রাখুন।

 

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেলো বন্দর বাজার রংমহল টাওয়ার এলাকায় একই ধ্বনি হাতুড়ির জয় হয়েছে। জয় হাতুড়ি।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com