প্রচ্ছদ

তারেক-জোবাইদার ব্যাংক হিসাব জব্দের আদেশ আদালতের

১৯ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:২৭

সুরমা মেইল ডেস্ক

জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও তাঁর স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমানের লন্ডনের একটি ব্যাংকের তিনটি হিসাব জব্দ করার ব্যবস্থা নেয়ার আদেশ দিয়েছে ঢাকার একটি আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) ঢাকার জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ কে এম ইমরুল কায়েশ এ আদেশ দেন। তবে এ বিষয়ে গণমাধ্যমকর্মীরা শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) জানতে পারেন। জব্দ করার আদেশ দেওয়া তিনটি হিসাবই সানট্যান্ডার ব্যাংক ইউকেতে।

দুদকের আইনজীবী মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর বলেন, আদেশটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ব্রিটেনের অ্যাটর্নি জেনারেলের অফিসে পাঠানো হবে। সেখানে অ্যাটর্নি জেনারেল অফিস সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে পাঠিয়ে আদেশ কার্যকর করবেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার দুর্নীতি দমন কমিশন আদালতে একটি পারমিশন মামলার আবেদন করে। সেই আবেদনে বলা হয়, তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং এবং অর্থ পাচার করে বিদেশে বিনিয়োগ-সংক্রান্ত অভিযোগের অনুসন্ধানকালে দুদক একটি তদন্ত টিম গঠন করে। সেই তদন্তের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ব্রিটেনের সানট্যান্ডার ব্যাংকে হোয়াইট অ্যান্ড ব্লু কনসালট্যান্ট লিমিটেড নামে প্রতিষ্ঠানের হিসাব হতে তারেক রহমান ও জোবাইদা রহমানের তিনটি ব্যাংক হিসাবে ৫৯ হাজার ৩৪১ দশমিক ৯৩ ব্রিটিশ পাউন্ড স্থানান্তর ব্রিটেনের ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (এফআইইউ) নির্দেশে আটক আছে। এই অর্থ তাঁরা অন্যত্র হস্তান্তর বা রূপান্তর করার চেষ্টা করছেন।

আবেদনে আরো বলা হয়, এই অর্থের বিষয়ে এক্ষুনি কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ না করা হলে তা বেহাত হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এবং মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের ১৭ ধারামতে রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করা সম্ভব হবে না বিধায় রাষ্ট্র ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তাই মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের ১৪ ধারা মতে অবরুদ্ধ করার আদেশ প্রয়োজন।

তারেক রহমান অর্থ পাচারের একটি মামলায় দেশের আদালতে দণ্ডিত। এছাড়া একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা এবং জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় তার দণ্ড রয়েছে। সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে গ্রেফতার হওয়ার এক বছর বাদে সরকারের নির্বাহী আদেশে মুক্তি নিয়ে চিকিৎসার জন্য ব্রিটেনে গিয়েছিলেন তারেক, তারপর থেকে স্ত্রী-মেয়েকে নিয়ে সেখানেই থাকছেন তিনি।

বিদেশে থেকেই বিএনপির জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন তিনি। মা খালেদা জিয়া গত বছর দুর্নীতির মামলায় দণ্ড নিয়ে কারাগারে যাওয়ার পর থেকে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  

Flag Counter

Ad area

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com