তিন ভাইবোন হারাল কোথায়

প্রকাশিত: ৩:১৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১১, ২০১৫

তিন ভাইবোন হারাল কোথায়

tin

সুরমা মেইলঃ সিলেটে হঠাৎ বেড়ে গেছে শিশু নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা। এ অবস্থায় অভিভাবকদের মধ্যে দেখা দিয়েছে আতঙ্ক। বিশেষ করে গত বুধবার নগরীর কাজলশাহ এলাকা থেকে রহস্যজনকভাবে একই পরিবারের তিন শিশু নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে অভিভাবকদের মধ্যে উৎকণ্ঠা দেখা দিয়েছে। তাদের সন্ধান চেয়ে নগরীজুড়ে মাইকিং করা হয়েছে।

ঢাকার বিক্রমপুরের লৌহজং থানার বাসিন্দা দুলাল আহমদ ভাড়া থাকেন নগরীর কাজলশাহ এলাকার ৪৩/১ নম্বর বাসায়। তিনি প্রাণ আরএফএল গ্রুপের সেলসম্যান। বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে দুলাল আহমদের স্ত্রী সেলিনা বেগম শিশুদের ঘরে রেখে বাসার বাইরে যান। রাতে ঘরে ফিরে দেখেন ১২ বছরের আছিয়া, ৯ বছরের সাদিয়া ও তিন বছরের ইরহাম ঘরে নেই। তিনি সঙ্গে সঙ্গে তাদের খোঁজে এ-বাড়ি ও-বাড়ি যান। কোথাও তাদের খোঁজে পাননি। পরে তার স্বামীকে ফোনে বিষয়টি জানান। সংবাদটি চাউর হলে এলাকার লোকজন তাদের সন্ধানে নামেন। গত চার দিনেও তাদের কোনো সন্ধান মেলেনি। এ ঘটনায় দুলাল আহমদ কোতোয়ালি থানায় জিডি করেন (জিডি নং-৫০৭, তাং-০৮/১০/২০১৫ ইং)।

গত চার দিনেও ওই শিশুদের সন্ধান না পেয়ে নগরীজুড়ে প্রচার চালানো হয়। মাইকিংয়ে একই পরিবারের তিন শিশু নিখোঁজ ও তাদের সন্ধান চাওয়া হয়। নগরীর জিন্দাবাজার, বন্দরবাজারসহ গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে মাইকিং করার পর অনেক পরিবারে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। নগরীর জিন্দাবাজারের ব্যবসায়ী নানু মিয়া জানান, মাইকে তিন শিশু নিখোঁজের সংবাদ শুনে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। এ সংবাদ শোনার পর পর বাসায় তার সন্তানদের খবর নিয়েছেন। এ ব্যাপারে নিখোঁজ শিশুদের ফুফু জোছনা বেগম বলেন, তারা সন্ধান চালিয়ে যাচ্ছেন। তার ভাই দুলাল এলাকার একটি সিসিটিভির ফুটেজ দেখেছেন। থানায় জিডি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে কোতোয়ালি থানার ওসি সোহেল আহমদ সমকালকে বলেন, দুলাল আহমদ তিন বিয়ে করেছেন। মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে তার অন্য স্ত্রীদের পরিচয় জানতে চাওয়া হয়েছে। তবে দুলাল মোবাইল ফোন রিসিভ করছেন না।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  

Flag Counter

আমাদের ভিজিটর সংখ্যা

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com