থানা ঘেরাও করলেন কাদের মির্জা

প্রকাশিত: ২:৫৩ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২১

থানা ঘেরাও করলেন কাদের মির্জা

সুরমা মেইল ডেস্ক : নোয়াখালীর এসপি মো. আলমগীর  হোসেন, কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহেদুল হক রনি ও ওসি তদন্ত মো. রবিউল হকের প্রত্যাহার ও কোম্পানীগঞ্জ চরকাঁকড়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ নেতা ফখরুল ইসলাম সবুজকে গ্রেপ্তারের দাবিতে থানা ঘেরাও করেছে বসুরহাটের পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জা।

 

মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) রাত পৌনে ১০ টার দিকে কোম্পানিগঞ্জ থানা ঘেরাও করে কাদের মির্জাসহ ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা।

 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, সন্ধ্যা ৭টার দিকে কোম্পানীগঞ্জ চরকাঁকড়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ নেতা ফখরুল ইসলাম সবুজ টেকের বাজারে তার কিছু অনুসারীদের নিয়ে কাদের মির্জার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করেন। এতে তিনি মেয়র কাদের মির্জার বিরুদ্ধে অশালীন ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য দেন। খবর পেয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ফখরুল ইসলাম সবুজকে আটকের খবর ছড়িয়ে পড়ে। পরে তাকে (সবুজ) পুলিশ ছেড়ে দেয়ার খবর পেয়ে দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে কাদের মির্জা নিজেই থানা ঘেরাও করে থানার ফটক অবরোধ করেন।

 

আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, দায়িত্বে অবহেলার জন্য নোয়াখালীর এসপি মো. আলমগীর হোসেন, কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহেদুল হক রনি, ওসি তদন্ত মো. রবিউল হকের প্রত্যাহার, কোম্পানীগঞ্জ চরকাঁকড়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ নেতা ফখরুল ইসলাম সবুজ ও তার আশ্রয়দাতা মিজানুর রহমান বাদল এবং ফখরুল ইসলাম রাহাতকে গ্রেপ্তার না করা পর্যন্ত এ আন্দোলন চলবে।

 

পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন জানান, এটি একটি রাজনৈতিক কর্মসূচি। এর সমাধান রাজনৈতিকভাবেই হবে। এসপি এবং ওসির পদত্যাগ চাইছে তাদের অপরাধ কী এমন প্রশ্ন পুলিশ সুপারের।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com