ফিল্মি কায়দায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে ধর্ষণ

প্রকাশিত: ১২:১২ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০১৫

ফিল্মি কায়দায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে ধর্ষণ
rape
সুরমা মেইলঃ ঢাকার বনানীর নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থীকে ফিল্মি কায়দায় তুলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের পর ওই ছাত্রীকে আবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে রেখে গেছে ওই ধর্ষক। ওই ছাত্রীকে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্তকে সোমবার দুপুরে গ্রেপ্তার করেছে।

সবুজ সদর উপজেলার ঘোনা এলাকার জাকারিয়া মহীউদ্দিনের ছেলে। মানিকগঞ্জের ওয়্যারলেস গেট এলাকার ঈশান মটরের পার্টস ব্যবসায়ী সে। আর ধর্ষণের শিকার ওই শিক্ষার্থীর বাড়ি মানিকগঞ্জ শহরের পূর্ব দাশড়া এলাকায়।

ওই ছাত্রী জানান, সবুজ দীর্ঘদিন ধরে তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। রাজি না হওয়ায় সে তাকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল।

ওই ছাত্রী আরও জানান, তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীনিবাসে থাকেন। গত শনিবার বেলা ১১টার দিকে তাকে ঢাকার ছাত্রীনিবাসের সামনে থেকে প্রাইভেটকারে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায় সবুজ। এরপর নির্জন স্থানে নিয়ে তাকে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতন করে।

এসময় সবুজ মোবাইল ফোনে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতনের ভিডিও ক্লিপও ধারণ করেন। এরপর প্রাইভেটকারে করে তাকে ছাত্রীনিবাসের সামনে বিবস্ত্র অবস্থায় রেখে চলে যায় সবুজ। খবর পেয়ে ওই শিক্ষার্থীর বাবা তাকে নিয়ে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করান।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুর রহমান জানান, এ ঘটনায় ওই শিক্ষার্থীর বাবার করা অভিযোগের প্রেক্ষিতে সবুজকে আটক করা হয়েছে। সবুজের মোবাইল ফোনে শারীরিক নির্যাতনের ভিডিও ক্লিপও পাওয়া গেছে। ওই শিক্ষার্থীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com