মোবাইল প্রযুক্তির অপপ্রয়োগে হৃদরোগ

প্রকাশিত: ২:১৮ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৭, ২০১৯

মোবাইল প্রযুক্তির অপপ্রয়োগে হৃদরোগ

ড. মো: রহিমুল্যাহ মিঞা : হৃদরোগ হলো একটি সাধারণ কিন্তু সংকটজনিত অসংক্রামক রোগ, যা হৃদয়ের কোনও সিন্ড্রোম মোড়ানো একটি স্প্যান যার বিপরীতে কার্ডিওভাসকুলারের অসুস্থতার কারণে রক্তনালীগুলো এবং রক্ত সঞ্চালনের সিস্টেমের সাথে জটিলতা দেখা দেয়। এই অসুস্থতায় হার্ট-নিজেই সমস্যায় জড়জরিত এবং অস্বাভাবিক থাকে। এই হার্ট অ্যাটাক রক্তের সহজলভ্যতার ক্ষতি দ্বারা ক্ষতিগ্রস্থ হার্টের পেশীর একটি অংশের মৃত্যু রক্তের জমাট বেঁধে যখন হৃৎপিন্ডের পেশী পৌঁছানো ধমনীটি সংকুচিত হয তখন রক্তপ্রবাহ বিচ্ছিন্ন হয়। হার্ট অ্যাটাক এমন একটি সংকট যাতে রক্তের জমাট বাঁধার প্রভাবের মতো হার্টের রক্তের প্রবেশযোগ্যতায় বাধা দেয়। এই হার্ট অ্যাটাকের আরেকটি নাম কার্ডিয়াক ইনফার্কশন, করোনারি থ্রোম্বোসিস এবং মাওয়োকার্ডিয়াল ইনফার্কশন হিসাবে চিহ্নিত হয়। যখন দেহের কোনও অংশে রক্তের উৎস পরিবর্তিত হয় এবং শরীরের সেই অংশের টিস্যু নষ্ট হয়ে যায়। প্রকৃতপক্ষে হার্ট অ্যাটাকটি উপযুক্ত পরিবেশের পরিস্থিতি অনুযায়ী কার্ডিয়াক ক্যাপচারের দিকে নিয়ে যেতে পারে। হার্ট অ্যাটাক সম্পর্কিত ঘটনাগুলি, হার্টের পেশী রক্ত সঞ্চালনে ব্যর্থ হয় এবং তারপরে পেশীটি আহত হয়। সম্প্রতি, হার্ট অ্যাটাকের সাধারণ লক্ষণগুলি হ’ল বুকের অস্বস্তি এবং হঠাৎ ব্যথা। ভাবি হঠাৎ বুকে ব্যথা কেন? তারপরে আমি গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেমের (জিপিএস) সাথে স্থানাঙ্ক সনাক্তকরণের মাধ্যমে শ্বাসনালী এবং শরীরের অন্যান্য অঙ্গগুলির দিকে রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি ব্যবহার করে কুকুর এবং বিড়ালদের উপর আমার পরীক্ষা চালিয়েছি। প্রথমত মানব / প্রাণীর দেহের অবস্থানটি জিপিএস এবং গ্লোবাল নেভিগেশন স্যাটেলাইট সিস্টেমস (জিএনএসএস) সহ দ্রাঘিমাংশ, অক্ষাংশ এবং উপবৃত্তাকার উচ্চতা চিহ্নিত করে টেলিমেটিক্স, প্রযুক্তি-রাডার এবং প্রযুক্তি-লেজারের মতো আরএফআইডি (রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি আইডেন্টিফিকেশন) প্রযুক্তি ব্যবহার করেছি। তারপরে জিএনএসএস দ্বারা চিহ্নিত ব্যক্তি বা অবজেক্ট স্ক্যান করে এবং গেটওয়েতে নোড বা পয়েন্টার প্রবেশের বা ওয়্যারলেস সেন্সর নেটওয়ার্কগুলি প্রসারিত করে বা বিদ্যমান অঙ্গের প্রয়োজনীয়তা অনুসারে নেট বিতরণ করা হয়েছে। যখন ওয়ারলেস সেন্সর নেটওয়ার্ক নির্দিষ্ট অঙ্গে প্রবেশ করায়, অক্সিজেন সঞ্চালনের অভাবে তাৎ্ক্ষণিকভাবে এই অঙ্গটি নিষ্ক্রিয় হয়, ইতিমধ্যে হৃদরোগের আক্রমণে আটকে যাওয়া টিস্যুটির সহজে মৃত্যু হয়।

 

গবেষণার উদ্দেশ্য : আমাদের দেশে সম্প্রতি অনেক মানুষ এ রোগে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, আজও হচ্ছে। এভাবে প্রতি বছর অনেক আবালবৃদ্ধবনিতা অসুস্থ হচ্ছে এবং পরে মৃত্যু হচ্ছে, যা আমাকে চিন্তায় ফেলেছে। আমি বাংলাদেশের নাগরিক এবং পাশাপাশি একজন মুসলমানের দায়িত্ব হিসেবে বর্তমান প্রজন্মের প্রতি আমার হক বা অবদান আছে। সম্প্রতি মালয়েশিয়ার ইউনিমাস থেকে পিএইচডি ডিগ্রি শেষ করে আমি দেশে ফিরেছি। এই পিএইচডি ডিগ্রি কেবল এটি আমার সার্টিফিকেটের মধ্যেই হেফাজতে রাখার জন্য নয়, এই ডক্টরেট ডিগ্রী বিশ্বের সমগ্র মানুষের কল্যানের জন্য, যা সম্পন্ন করার জন্য আমি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ থেকে পিএইচডি ফেলোশিপ এবং ইউনিমাস থেকে জামালাহ স্কলারশীপ পেয়েছি। এজন্য আমি বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার সংস্থা দুটিকে আমার অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে ধন্যবাদ জানাই। তাই আমার লেখাটি সারা দেশ বা বিশ্বের অনেকের পক্ষে কাজে লাগতে পারে, ইনশাআল্লাহ।

 

পরীক্ষালব্দ ফলাফল : আমার পিএইচডি স্টাডিতে পরীক্ষার জন্য তিনটি টুল্স ছিল, যথাঃ বায়ো-সেন্সর নেটওয়ার্কগুলির প্রয়োগ, নীতি এবং জীববৈচিত্র্য। এক্ষেত্রে আমি প্রাণী, উদ্ভিদ এবং জীববৈচিত্র্য সম্পর্কিত অন্যান্য বেশ কয়েকটি ইস্যুতে বায়ো-সেন্সর নেটওয়াকর্ নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছি। আমার পরীক্ষাটি দুটি প্রাণী যথা কুকুর এবং বিড়ালসহ আরও কয়েকটি বিষয়ের চলে। পরীক্ষাগুলির সময়, আমি টেলিমেটিক্সের মাধ্যমে বিভিন্ন দূরত্ব এবং উচ্চতায় বিভিন্ন রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি ব্যবহার করি। পরীক্ষার আগে আমি প্রত্যেকটি প্রাণীর সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে এবং নমুনা প্রাণীগুলির রোগমুক্ত জানার জন্য পৃথক পৃথক বডি মাস ইনডেক্স (বিএমআই), শরীরের তাপমাত্রা, শ্বাস প্রশ্বাসের হার এবং রক্তচাপ পরীক্ষা করেছিলাম। এব্যাপারে ডাক্তার, নার্স, মেডিক্যাল ইন্টার্ন ছাত্র-ছাত্রীরা আমাকে সহযোগিতা করেছিল। একটি গতিশীল পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরে, আমি এই সিদ্ধান্তে এসেছি যে অন্ধকার পরিবেশে মোটা প্রাণিটি ৭ মিনিটে এবং ১২ মিনিটে পাতলা তথা চিকন প্রাণিটি অসুস্থ হয়ে পড়েছিল। এবং আলোতে প্রায়ই দ্বিগুণ সময়ে প্রাণীগুলো অসুস্থ ছিল। তবে এই প্রাণীগুলিকে অসুস্থ করতে অন্ধকার, আলোর চেয়ে বেশি সংবেদনশীল। পরীক্ষালব্দ সময় এবং ফ্রিকুয়েন্সি যদি আরও বাড়িয়ে দেওয়া যেতো অথবা তা দ্বিগুণ করলে এর প্রভাব নেতিবাচক হতো। যা আমার গবেষণা নিবন্ধে, আম

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com