রাশিয়াকে ন্যাটোর হুঁশিয়ারি

প্রকাশিত: ১:৪৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৬, ২০১৫

রাশিয়াকে ন্যাটোর হুঁশিয়ারি

russia

সুরমা মেইলঃ সিরিয়ায় হামলায় নিয়োজিত একটি রুশ যুদ্ধবিমানকে তাড়া করেছে তুরস্কের বিমানবাহিনী। ফের এ ধরনের ঘটনা ঘটলে যে কোনো দুর্ঘটনার জন্য মস্কো দায়ী থাকবে বলেও হুঁশিয়ার করেছে আঙ্কারা। রাশিয়া বলেছে ভুলবশত এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনাকে অনাকাঙ্ক্ষিত আখ্যা দিয়ে রাশিয়ার বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে ন্যাটো। তুরস্কের আহ্বানে গতকাল সোমবার আঙ্কারা যান ন্যাটো প্রধান। জোটের জরুরি বৈঠকও ডেকেছেন তিনি। এদিকে তুর্কি আকাশসীমা লঙ্ঘন ইচ্ছাকৃত হতে পারে বলে মন্তব্য করেছে যুক্তরাষ্ট্র। খবর :বিবিসি, এএফপি।

তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গতকাল জানিয়েছে, দেশটির আকাশসীমা লঙ্ঘন করায় একটি রুশ যুদ্ধবিমানকে তাড়া করেছে তাদের একটি এফ-১৬ যুদ্ধবিমান। শনিবার স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা ৮মিনিটের দিকে রুশ বিমানটি তুরস্কের ইয়েলাদাগি/হাতেই অঞ্চলের দক্ষিণের আকাশ সীমায় চলে আসে। তবে তাড়া খেয়ে রুশ বিমানটি পুনরায় তুরস্কের আকাশ সীমা ছেড়ে সিরিয়া প্রবেশ করে। শনিবারের এ ঘটনার পর ন্যাটোপ্রধান জেনস স্টোলটেনবার্গকে বৈঠকের জন্য আমন্ত্রণ জানায় আঙ্কারা। গতকাল সোমবার তুরস্কে গিয়ে তিনি তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফারিদূন সিনিরিলোগলুর সঙ্গে বৈঠক করেন। এর পর স্টোলটেনবার্গ বলেন, রাশিয়ার এ কাণ্ড অনাকাঙ্ক্ষিত। এতে আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা ও নিরাপত্তা বিনষ্ট হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি। এ ঘটনায় ২৮ সদস্যের জোটের জরুরি বৈঠকও ডেকেছেন তিনি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক মার্কিন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা গতকাল বলেন, রাশিয়ার জঙ্গিবিমান ইচ্ছাকৃতভাবে তুর্কি আকাশসীমা লঙ্ঘন করেছে বলে মনে করছেন তারা। তিনি বলেন এটি দূর্ঘটনা বলে আমি মনে করি না।
তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গতকাল জানিয়েছে, দেশটির আকাশসীমা লঙ্ঘন করায় একটি রুশ যুদ্ধবিমানকে তাড়া করেছে তাদের একটি এফ-১৬ যুদ্ধবিমান। শনিবার স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা ৮ মিনিটের দিকে রুশ বিমানটি তুরস্কের ইয়েলাদাগি/হাতেই অঞ্চলের দক্ষিণের আকাশসীমায় চলে আসে। তবে তাড়া খেয়ে রুশ বিমানটি পুনরায় তুরস্কের আকাশসীমা ছেড়ে সিরিয়ায় প্রবেশ করে।
তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ বিষয়টি নিয়ে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন। ন্যাটোভুক্ত অন্যান্য দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গেও আলোচনা করেন তিনি। তুরস্কে নিয়োজিত ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূত রিচার্ড মুর একে রাশিয়ার ‘কাণ্ডজ্ঞানহীন ও উদ্বেগপূর্ণ’ কর্মকাণ্ড বলে সমালোচনা করেন। এর আগে এ ঘটনার ‘কঠোর প্রতিবাদ’ জানাতে তুরস্কে নিয়োজিত রুশ রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠায় দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এ ঘটনার পুনরাবৃত্তি দেখতে চায় না তুরস্ক_ এ কথা জানিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এর অন্যথা হলে ‘যে কোনো ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার জন্য রাশিয়া সম্পূর্ণ দায়ী থাকবে।’
ঘনিষ্ঠ মিত্র প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের আহ্বানে সাড়া দিয়ে রাশিয়া গত বুধবার থেকে আইএস জঙ্গি গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে অব্যাহতভাবে বিমান হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। তবে শুধু আইএস জঙ্গিদের ওপরই নয়, আসাদবিরোধী অন্যান্য গোষ্ঠীর বিরুদ্ধেও রাশিয়া বিমান হামলা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন সিরিয়ার মানবাধিকার কর্মীরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  

Flag Counter

আমাদের ভিজিটর সংখ্যা

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com