লকডাউনে বিশ্বনাথের ভিন্ন চিত্র, দ্বিতীয় দিনেও জরিমানা আদায়

প্রকাশিত: ১:৩২ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৭, ২০২১

লকডাউনে বিশ্বনাথের ভিন্ন চিত্র, দ্বিতীয় দিনেও জরিমানা আদায়

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি : করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে দেশব্যাপী দ্বিতীয় দফায় লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। সোমবার (০৫ এপ্রিল) ভোর ৬টা থেকে শুরু হওয়া লকডাউনের ছিলো প্রথম দিন। যার ফলে সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জনসমাগম বন্ধ, গণপরিবহণ এবং নিত্যপণ্যের দোকানপাট ব্যতীত সকল কিছু বন্ধ থাকার কথা থাকলেও লকডাউনের প্রথম দিনের চেয়ে দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার (০৬ এপ্রিল) সিলেটের বিশ্বনাথের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে তার ভিন্ন চিত্র।

 

কাগজে ঘোষণায় লকডাউন থাকলেও তা মানছেন না কেউ। বিশ্বনাথ লামাকাজী এলাকা ঘুরে দেখা গেছে ঢিলেঢালা ভাবেই চলছে লকডাউন। কারো মধ্যে নেই স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই। লকডাউনের বিধি নিষেধ সম্পর্কে নেই কারো ধারণা। এমনকি সড়কে চলাচল করছে সিএনজি অটোরিকশা-মাইক্রোবাস।

 

লকডাউনের দ্বিতীয় দিনেও বিশ্বনাথ থানার পুলিশের একাধিক টিম মাঠে থাকলেও মানুষের মধ্যে সচেতনতা ছিল না। ছিল না মুখে মাস্কও। অনেকেই চায়ের দোকানগুলো দিয়েছেন আড্ডা।

 

তাছাড়া, সিএনজি চালিত অটোরিকশায় তিনজন নিয়ে সড়কে চলাচল করার কথা থাকলেও চার/পাঁচজন নিয়ে চলতে দেখা যায়। পাশাপাশি অতিরিক্ত ভাড়া নেয়ার অভিযোগও করেছেন অনেকে।

 

আরও পড়ুন : বিশ্বনাথে ঢিলেঢালা লকডাউন, ৭ জনকে জরিমানা

 

অফিস খোলা রেখে গণপরিবহন বন্ধ ঘোষণার সেই সুযোগে সড়কজুড়ে বিকল্প পরিবহনের ছড়াছড়ি দেখা গেছে। সবমিলিয়ে সরকার ঘোষিত লকডাউনের প্রথম দিনের চেয়ে দ্বিতীয় দিন অনেকটাই বলতে গেলে স্বাভাবিক ই ছিল বিশ্বনাথ এলাকার গাড়ি চলাচল।

লকডাউনে বিশ্বনাথের ভিন্ন চিত্র, দ্বিতীয় দিনেও জরিমানা আদায়

এদিকে, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানকালে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় বিশ্বনাথে বিভিন্ন জনকে জরিমানা করা হয়েছে।

 

দুপুর ২টার দিকে উপজেলার রামপাশা ও বৈরাগী বাজারে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. কামরুজ্জামান।

 

এ সময় ওই এলাকায় স্বাস্থ্যবিধি না মানার অপরাধে দণ্ডবিধি ১৮৬০ ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর বিভিন্ন ধারায় ৭ ব্যক্তিকে ৩ হাজার ১০০ টাকা অর্থদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com