শাবান : রমজানের প্রস্তুতি নেয়ার মাস

প্রকাশিত: ৬:২৩ অপরাহ্ণ, মে ১২, ২০১৬

শাবান : রমজানের প্রস্তুতি নেয়ার মাস

download

সুরমা মেইল নিউজ : শাবান হিজরি বর্ষের ৮তম মাস। আজ ১৪৩৭ হিজরির শাবান মাসের প্রথম দিন। এ মাসের মর্যাদা ও গুরুত্ব অনেক বেশি। কারণ এ মাসের পরের মাসই হচ্ছে রহমত বরকত মাগফিরাতের মাস রমজান। রমজানের পূর্ব প্রস্তুতি গ্রহণের মাস এটি। সংক্ষেপে শাবান মাসের গুরুত্ব ও মর্যাদা তুলে ধরা হলো-

>> রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম রজব মাসের চাঁদ উঠলেই তিনি আল্লাহ তাআলার নিকট এ বলে দোয়া করতেন যে, হে আল্লাহ! আপনি রজব এবং শাবান মাসকে আমাদের জন্য বরকতময় করুন এবং আমাদেরকে রমজান পর্যন্ত পৌছিয়ে দিন।

>> হজরত আয়িশা রাদিয়াল্লাহু আনহা বলেছেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম শাবান মাসের প্রতি এত বেশি লক্ষ্য রাখতেন যা অন্য কোনো মাসের ক্ষেত্রে রাখতে না। (আবু দাউদ)

>> হজরত আয়িশা রাদিয়াল্লাহু আনহা আরো বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম শাবান মাসের চেয়ে অন্য কোনো মাসে এতো বেশি (নফল) রোজা রাখতেন না। (বুখারি, মুসনাদে আহমাদ)>> রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মধ্য শাবান অর্থাৎ ১৫ শাবান জান্নাতুল বাকিতে গিয়ে মুমিনদের কবর যিয়ারাত করতেন এবং তাদের জন্য দোয়া করতেন।

সতর্কতাআমাদের দেশে ১৪ শাবান দিবাগত রাতকে ভাগ্য রজনি উল্লেখ করে বিভিন্ন আমল ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। নফল ইবাদাত-বন্দেগিতে মসজিদে ভিড় করে থাকেন। কিন্তু রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের বাসগৃহ থেকে কয়েক কদম অতিবাহিত করলেই মসজিদে নববির মতো মসজিদ থাকা সত্ত্বেও নিজ গৃহে নফল ইবাদাত-বন্দেগি করেছেন। কোনো রুসুম রেওয়াজে গা না ভাসিয়ে শাবান মাসের গুরুত্ব ও মর্যাদা রক্ষার্থে নফল রোজা, ইবাদাত-বন্দেগি ও মৃত ব্যক্তির জন্য দোয়া করা।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে শাবানমাস জুড়ে নফল রোজা এবং নফল ইবাদাত বন্দেগি করে রমজানের প্রস্তুতি গ্রহণের তাওফিক দান করুন। আমিন।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com