প্রচ্ছদ

সতীর দেহের একান্ন পীঠ

০৩ অক্টোবর ২০১৬, ১৬:৫০

সুনির্মল সেন

দক্ষযজ্ঞে সতী দেহ ত্যাগ করলে জগৎ পিতা শ্রী শ্রী মহাদেব সেই দেহ স্কন্দে নিয়ে উন্মাদের মতো নৃত্য করিতে আরম্ভ করেন। অতঃপর ভগবান শ্রীবিষ্ণু সেই দেহ চক্র দ্বারা ছেদন করেন। সেই অঙ্গের যে যে অঙ্গ যেসব স্থানে পতিত হয় সেই স্থানকে পীঠস্থান বলে।

সতীর দেহের ছিন্ন ভিন্ন অংশ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের একান্নটি স্থানে পড়েছিলো। পরবর্তীতে সেই স্থানগুলোতে গড়ে উঠেছিলো বিভিন্ন মঠ, মন্দির, উপাসনালয়, পীঠস্থান। সেগুলোতে আজো যুগের পর যুগধরে চলে আসছে সতী দেহেরে পূজার্চ্চনা। সারা বছর ধরে এসব মন্দিরে লেগে থাকে ভক্ত এবং দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভীড়। কোন স্থানে সতীর দেহের কোন অংশ পড়েছিলো তার একটি সংক্ষিপ্ত বিবরণ শারদীয় উৎসব দুর্গাপূজায় স্ব-হৃদয় পাঠকদের উদ্দেশ্যে তুলে ধরা হলো এ প্রব›েদ্ধ।

১. দক্ষিন বাহু: চট্রলা, চন্দ্রনাথ পাহাড়, সীতাকুন্ড, চট্রগ্রাম। ২. বামজঙ্গা: জয়ন্তী, কালাজোর, জৈন্তাপুর, সিলেট। ৩. গ্রীবা: গোটাটিকর, দক্ষিন সুরমা, সিলেট। ৪. নাসিকা: সুগন্ধা, শিকারপুর, বরিশাল। ৫. নাভী: উৎকল, পুরী, ভারত। ৬. ডান পাদাঙ্গুলি: কালীঘাট, কোলকাতা, পশ্চিম বাংলা। ৭. ডান পাদাঙ্গুষ্টি: যগাদা, ক্ষীরগ্রাম, বর্ধমান পশ্চিম বাংলা। ৮. হাতের আঙ্গুল: প্রয়াগ, এলাহাবাদ, উত্তর প্রদেশ। ৯. বামগন্ড: রাজা মহেন্দ্রী, অহৃপ্রদেশ। ১০. নূপুর: লঙ্কা, শ্রীলঙ্কা। ১১. বামস্থন: দেবী তলাও, জলন্ধর। ১২. কর্ণকুন্ডল: মনিকনিকাঘাট, বারানসী উত্তর প্রদেশ। ১৩. পানিপদ্ম: ঈশ্বরপুর, খুলনা। ১৪. চিবুক: জনস্থান, নাসিক মহারাষ্ট্র, ভারত। ১৫. বামস্কন্ধ: মিথিলা, জনকপুর, নেপাল। ১৬. কেশজাল: ভূতেশ্বর রোড, বৃন্দাবন, উত্তর প্রদেশ। ১৭. অষ্ঠ: অুহাস, লাভপুর, বীরভূম, পশ্চিম বাংলা। ১৮. দক্ষিন হস্থ: মানস সরোবর, কৈলাস পর্বত, তিব্বত, চিন। ১৯. ব্রক্ষরন্ধ্র: হিঙলাজ, করাচি, পাকিস্থান। ২০. বামবাহু: কেতুগ্রাম, বর্ধমান, পশ্চিম বাংলা। ২১. গুলফ: কুরুক্ষেত্র, হরিয়ানা, ভারত। ২২. কঙ্কাল: কাঞ্চি, বোলপুর বীরভূম, পশ্চিম বাংলা। ২৩. ডান পায়ের গোড়ালি: শ্রীপর্বত, লাদেখ, কাশ্মির। ২৪. মন: ব্রক্রেশ্বর, দুবরাজপুর, বীরভূম, পশ্চিম বাংলা। ২৫. কন্ঠ: নন্দিপুর, বীরভূম, পশ্চিম বাংলা। ২৬. ত্রিনেত্র: করবীর, সুক্কুর, করাচি, পাকিস্তান। ২৭. পৃষ্ঠদেশ: কন্যাকুমারী, তামিলনাড়–, ভারত। ২৮. পানিপদ্ম: ঈশ্বরপুর, খুলনা। ২৯. কিরীট: মুর্শিদাবাদ, পশ্চিম বাংলা। ৩০. উধওষ্ঠ: ভৈরব, উজ্জয়িনী, মদ্ধপ্রদেশ। ৩১. জানুদ্বয়: পশুপতিনাথ মন্দির, নেপাল। ৩২. পায়ের হাড়: নলহাটি, বীরভূম, পশ্চিম বাংলা। ৩৩. বামপদ: ত্রি¯্রােতা, শালবাড়ি জলপাইগুড়ি, পশ্চিম বাংলা। ৩৪. কন্ঠ: অমরনাথ, চন্দনবাড়ি, শ্রীনগর। ৩৫. কর্ণদ্বয়: কর্ণাট, কর্ণাটক, ভারত। ৩৬. ডান কনুই: উজানি, গুসকরা বর্ধমান, ভারত। ৩৭. মনিবন্ধ: গায়ত্রী পাহাড়, রাজস্থান, ভারত। ৩৮. নিতম্ব: অমরকন্ঠ, মধ্যপ্রদেশ, ভারত। ৩৯. বাম পাদাঙ্গুলি: বিরাট, ভরতপুর, রাজস্থান, ভারত। ৪০. গন্ঠদেশ: গন্ডকি, গন্ডকি নদীর উৎসমুখ, পোখরা, নেপাল। ৪১. বাম নিতম্বর: কালোমাধব, অমরকন্ঠ,মধ্যপ্রদেশ। ৪২. উদ্ধদন্ড পাটি: শুচি, কন্যাকুমারী, তামিলনাড়–। ৪৩. জিহ্বা: জ্বালামুখি, পাঠানকোঠ। ৪৪. হৃদয়: বৈদ্যনাথ, ঝাড়খন্ড। ৪৫. দক্ষিনপদ: রাধা কিশোরপুর, উদয়পুর, ত্রিপুরা। ৪৬. উদর: প্রভাস, সোমনাথ মন্দিরের পাশে, ভেরাবল, জুনাগড়, গুজরাট। ৪৭. অধোদন্ড পাটি: পঞ্চসাগর, ভারত। ৪৮. যোনিদেশ: কামরুপ কামাখ্যা, নীলাচল পাহাড়, গৌহাটি, ভারত। ৪৯. ডানস্থন: রামগিরি, ঝাঁসি, উত্তর প্রদেশ, ভারত। ৫০. তল্প: করতোয়াতট, ভবানিপুর, শেরপুর, বগুড়া। ৫১. চিবুক: জনস্থান, গোদাবরী, মহারাষ্ট্র। উল্লেখ্য যে, কারো কারো মতে সতীর পৃষ্ঠদেশ পড়েছিলো কুমারীকুন্ড চট্রগ্রামে।

লেখক : সুনির্মল সেন, প্রধান নির্বাহী সিলেট নিউজ ব্যাংক, নিউজ ইনচার্জ- সুরমা মেইল ডটকম, বাংলাদেশ।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com