সিলেট ঐতিহ্যবাহী এমসি কলেজের এইচএসসি-৯০তম ব্যাচের পুনর্মিলনী ৮ জানুয়ারী

প্রকাশিত: ৩:০০ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৯, ২০১৫

সিলেট ঐতিহ্যবাহী এমসি কলেজের এইচএসসি-৯০তম ব্যাচের পুনর্মিলনী ৮ জানুয়ারী

MC

সুরমা মেইল : সিলেটের ঐতিহ্যবাহী মুরারি চাঁদ  (এমসি ) কলেজের এইচএসসি-৯০ তম ব্যাচের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান আগামী ৮ জানুয়ারী অনুষ্ঠিত হবে। এতে ওই ব্যাচের শিক্ষার্থী ছাড়াও কলেজের সাবেক ও বর্তমান অধ্যক্ষ ও অধ্যাপকরা উপস্থিত থাকবেন।

শনিবার (২৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান পুনর্মিলনী উদযাপন প্রচার ও মিডিয়া কমিটির আহ্বায়ক ও সিলেট জেলা বারের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট শামসুল ইসলাম।

লিখিত বক্তব্যে বলেন, পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। এসব কর্মসূচির মধ্যে ওই দিন কলেজ ক্যাম্পাসে ২৫টি গাছের চারা রোপন ও ক্যাম্পাসে বর্ণাঢ্য  র‌্যালি বের করা হবে। এছাড়া একটি অভিজাত হোটেলে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার মধ্য দিয়ে পালিত হবে পুনর্মিলনী।

উল্লেখ্য, ৯০’ব্যাচের মোট শিক্ষার্থী ছিলেন ৩৩০ জন। এর মধ্যে ৩ জন মারা গেছেন। বাকি ৩২৭ জনের মধ্যে ২০০ জন এরই মধ্যে রেজিস্ট্রেশন করেছেন।
একই দিনে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে বসবাসরত শিক্ষার্থীরাও পৃথক পুনর্মিলনী আয়োজনের উদ্যোগ  নিয়েছেন বলে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, আয়োজন কমিটির মুখপাত্র আমিরুল হোসেন খান, সদস্য সচিব আহমেদ জিল্লুল দারা, সিলেট জেলের জেলার মাসুদ পারভেজ মঈন, কানাইঘাট ডিগ্রি কলেজের প্রফেসর মো. আজাদ উদ্দিন, সিলেট টিচার্স ইনস্টিটিউটের এসিস্ট্যান্ট প্রফেসর ড. দিদার চৌধুরী, স্কয়ার হসপিটালের চিকিৎসক ডা. জুবায়ের হোসেন সুফি, মদন মোহন কলেজের শিক্ষক উজ্জল দাশ প্রমুখ।

১২৩ বছর পেরিয়ে যাওয়া কলেজটি ১৮৯২ সালে গিরীশ চন্দ্র রায় প্রতিষ্ঠা করেন। পরবর্তীতে ভারতবর্ষের শ্রেষ্ঠ কলেজ হিসেবে সুখ্যাতি লাভ করেছিলো প্রতিষ্ঠানটি।

ঐতিহ্যবাহী সিলেট এমসি কলেজ থেকে স্বাধীনতা ও একুশে পদকপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ দেওয়ান মোহাম্মদ আজরফ, জাতীয় অধ্যাপক ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ব্রিগেডিয়ার এম এ মালেক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের অধ্যাপক ড. সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, আমেরিকার বিখ্যাত পদার্থ বিজ্ঞানী মোহাম্মদ আতাউল করিম, মুক্তিযোদ্ধা কর্নেল আবু তাহের, বিখ্যাত ডন পত্রিকার সাংবাদিক মোহাম্মদ আলতাফ হোসেন, বিখ্যাত গণিতবিদ অধ্যাপক জিতেন্দ্র কুমার ভট্টাচার্য, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুস সামাদ আজাদ, সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান, শাহ এ এম এস কিবরিয়া, বর্তমান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, সাবেক রেলমন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, সাবেক মন্ত্রী দেওয়ান ফরিদ গাজী, গণমানুষের কবি দিলওয়ার, বিখ্যাত ইতিহাসবিদ নিহার রঞ্জন রায়, বুয়েটের প্রথম উপাচার্য এম এ রশিদ, ভুটানের রাষ্ট্রদূত যিষ্ণু রায় চৌধুরীসহ অসংখ্য প্রজ্ঞাদীপ্ত ব্যক্তিরা শিক্ষা নিয়ে বের হয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Flag Counter

আমাদের ভিজিটর সংখ্যা

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com