সিলেট বিভাগে মহাজোট ১৭, ঐক্যফ্রন্ট ২

প্রকাশিত: ৪:২২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১, ২০১৯

সিলেট বিভাগে মহাজোট ১৭, ঐক্যফ্রন্ট ২

সদ্য সমাপ্ত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সারাদেশের মতো সিলেট বিভাগেও ভূমিধ্বস বিজয় পেয়েছে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট। বিভাগের ১৯টি আসনের মধ্যে মহাজোট পেয়েছে ১৭টি আসন।

এরমধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা ১৬টিতেই বিজয়ী হয়েছেন। একটিতে জিতেছেন আওয়ামী লীগের জোটসঙ্গী জাতীয় পার্টির প্রার্থী। আর দু’টিতে জিতেছেন ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীরা।

সিলেট-১ আসনে দ্বিগুনের চেয়ে বেশি ভোটের ব্যবধানে জয় লাভ করেছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী ড. একে আব্দুল মোমেন। ১ লাখ ৭৪ হাজার ৮৪৫ ভোটের ব্যবধানে জয় লাভ করেন অর্থমন্ত্রীর এই অনুজ।

১ আসনের ২১৫টি কেন্দ্রের সবগুলোর ফলাফলে ড. একে আব্দুল মোমেন পেয়েছেন ২ লাখ ৯৮ হাজার ৬৯৬ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি ধানের শীষ প্রতীকের বিএনপির প্রার্থী খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির পেয়েছেন ১ লাখ ২৩ হাজার ৮৫১ ভোট।

সিলেট-২ আসনে জয়লাভ করেছেন উদীয়মান সূর্য প্রতীকে ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী মোকাব্বির খান। গণফেরামের এই প্রেসিডিয়াম সদস্য ৩৮ হাজার ৯৬৪ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন। মুকাব্বির খান মোট পেয়েছেন ৬৯,৪২০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী ডাব প্রতীকের মুহিবুর রহমান পেয়েছেন ৩০হাজার ৪৪৯ ভোট।

সিলেট সিলেট-৩ আসনে প্রায় ৯৩ হাজার ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েস।

এই আসনের ১৪৮টি কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকে কয়েস পেয়েছেন ১লাখ ৭৬ হাজার ৫৮৭ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি ধানের শীষ প্রতীকে বিএনপির শফি আহমদ চৌধুরী পেয়েছেন ৮৩ হাজার ২৮৮ ভোট।

সিলেট-৪ আসনে পুণরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী ইমরান আহমদ। ১ লাখ ৩১ হাজার ২৬৪ ভোটের ব্যবধানে জয় লাভ করেন তিনি।

ইমরান আহমদ নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ২ লাখ ২৩ হাজার ৬৭২ ভোট। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী ধানের শীষ প্রতীকের বিএনপির প্রার্থী দিলদার হোসেন সেলিম পেয়েছেন ৯২ হাজার ৪৭৩ ভোট।

সিলেট-৫ (জকিগঞ্জ-কানাইঘাট) আসনে ৯৩ হাজার ২৯৯ ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাফিজ আহমদ মজুমদার।

নৌকা প্রতীকে তাঁর প্রাপ্ত ভোট ১ লাখ ৩৯ হাজার ৭৩৫টি। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী উবায়দুল্লাহ ফারুক ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৮৩ হাজার ২৮৮টি ভোট।

সিলেট-৬ আসনে ৮৭ হাজার ৯২৬ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।
এই আসনে নুরুল ইসলাম নাহিদ পেয়েছেন ১লাখ ৯৬ হাজার ১৫টি ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকের ফয়সল আহমদ চৌধুরী পেয়েছেন ১ লাখ ৮ হাজার ৮৯টি ভোট।

মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা- জুড়ি) আসনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী মো: শাহাব উদ্দিন প্রায় ৭৭ হাজার ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন। নৌকা মার্কায় তিনি পেয়েছেন ১ লক্ষ ৪৫ হাজার ৮৪২ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি বিএনপির নাসির উদ্দিন মিঠু ধানের শীষ প্রতিকে পেয়েছেন ৬৫ হাজার ৮ ৫৩ ভোট।

মৌলভীবাজার-২ (কুলাউড়া) আসনে ২ হাজার ৫৭২ ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেছেন ধানের শীষ প্রতীকের ঐক্যফন্টের প্রার্থী সুলতান মো: মনসুর। তিনি পেয়েছেন পেয়েছেন ৭৯ হাজার ৭৪২ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি নৌকা প্রতীকে বিকল্পধারার প্রার্থী এমএম শাহীন পেয়েছেন ৭৭ হাজার ১৭০ ভোট।

মৌলভীবাজার-৩ (সদর-রাজনগর) আসনে ৭৯ হাজার ৯৮৭ ভোটের ব্যবধানে প্রথমবারের মতো জয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী নেসার আহমদ।

নেসার আহমদ পেয়েছেন ১ লক্ষ ৮৪ হাজার ৫৭৯ ভোট। অপরদিকে তাঁর প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ধানের শীষের প্রার্থী নাসের রহমান পেয়েছেন ১ লাখ ৪ হাজার ৫৯২ ভোট।

মৌলভীবাজার-৪ (শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ) আসনে ৬ষ্ঠবারের মতো সাংসদ নির্বাচিত হয়েছেন আ্ওয়ামী লীগের প্রার্থী উপাধ্যৗক্ষ আব্দুস শহীদ। নৌকা প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ২ লক্ষ ১১ হাজার ৬৫৯ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি বিএনপির মুজিবুর রহমান চৌধুরী ধানের শীষ প্রতিকে পেয়েছেন ৯৪ হাজার ২১৩ ভোট।

সুনামগঞ্জ-১ (তাহিরপুর-ধর্মপাশা ও জাামালগঞ্জ) আসনে ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন জয়ী হয়েছে। নৌকা প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ২লক্ষ ৬৫হাজার ৯২৬টি জয় লাভ করেছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি বিএনপি’র প্রাথী নজির হোসেন ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৭২হাজার ৫শত ৩৭টি ভোট পেয়েছেন।

সুনামগঞ্জ-২ (দিরাই-শাল্লা) আসনে জয়লাভ করেছেন জয়া সেন গুপ্তা। নৌকা প্রতীকে তিনি ১লক্ষ ২৪হাজার ১৭টি ভোট পেয়ে জয় লাভ করেছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি বিএনপি’র প্রার্থী নাছির হোসেন চৌধুরী ধানের শীষ প্রতীকে ৬৭হাজার ৫শত ৮৭টি ভোট।

সুনামগঞ্জ-৩ (দক্ষিণ সুনামগঞ্জ-জগন্নাথপুর) আসনে ফের সাংসদ নির্বাচিত হয়েছেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান। নৌকা প্রতীকে তিনি ১লক্ষ ৭৬হাজার ভোট পেয়ে জয় পেয়েছেন। তার নিকততম প্রতিদ্বন্ধি ২০ দলীয় জোটের প্রার্থী শাহিনূর পাশা চৌধুরী ধানের শীষ প্রতীকে ৪৪হাজার ২ শত ৮১টি ভোট পেয়েছেন।

সুনামগঞ্জ-৪ (সুনামগঞ্জ সদর-বিশ্বম্ভরপুর) আসনে মহাজোটের প্রার্থী লাঙ্গল প্রতীকে পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ ১লক্ষ ৩৭হাজার ২শত ৮৯টি ভোট পেয়ে জয় লাভ করেছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি বিএনপি’র প্রার্থী ফজলুল হক আসপিয়া ধানের শীষ প্রতীকে ৬৯৭৪৯টি ভোট।

সুনামগঞ্জ-৫ (ছাতক-দোয়ারাবাজার) আসনে নৌকা প্রতীকে ২লক্ষ ২০হাজার ৪২৮টি ভোট পেয়ে জয় লাভ করেছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি বিএনপি’র প্রার্থী মিজানুর রহমান চৌধুরী ধানের শীষ প্রতীকে ৮৯হাজার ৬শত ৩৪ টি ভোট পেয়েছেন।

হবিগঞ্জ-১ আসনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী শাহনেওয়াজ মিলাদ গাজী ১ লাখ ৫৮ হাজার ১শত ৮৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত গণফোরামের প্রার্থী ড. রেজা কিবরিয়া পেয়েছেন ৮৫ হাজার ১শ ৯৭ ভোট।

হবিগঞ্জ-৪ আসনে মহাজোট মনোনীত আওয়ামীলীগের প্রার্থী এডভোকেট মাহবুব আলী এমপি ৩ লাখ ৯ হাজার ৬ শত ৫৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত খেলাফত মজলিসের প্রার্থী ড. আহমদ আবদুল কাদের পেয়েছেন ৪৫ হাজার ১শত ৫১ ভোট।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com