সুন্দরবনে পর্যটক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশিত: ১২:২৯ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৩, ২০২১

সুন্দরবনে পর্যটক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

সুরমা মেইল ডেস্ক : করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলা ও সংক্রমণ রোধে সরকারি নির্দেশনায় সুন্দরবনে পর্যটক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বনবিভাগ।

 

শুক্রবার (০২ এপ্রিল) সন্ধ্যায় পূর্ব সুন্দরবনের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন জানান, হঠাৎ করে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ ধারণ করায় ৩ এপ্রিল থেকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বনের সব পর্যটনকেন্দ্র বন্ধ থাকবে। কর্তৃপক্ষের নির্দেশনায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশনাও জানিয়ে দেওয়া হবে।

 

বন বিভাগ জানায়, গত ২৬ মার্চ পর্যন্ত সুন্দরবনে পর্যটকদের আনাগোনা ছিল বেশ ভালোই। তবে এরপর থেকে তা কমতে থাকে। ২৬ মার্চ শুক্রবার মোংলা থেকে সুন্দরবনের সবচেয়ে কাছাকাছি ও আকর্ষণীয় পর্যটনকেন্দ্র করমজলে পর্যটকের সংখ্যা ছিল এক হাজারের মতো। শুক্রবারের আগে বৃহস্পতিবার যা ছিল প্রায় এক শ আর বুধবারে ছিল মাত্র ৫০/৬০ জনের মতো। শুক্রবার সেখানে পর্যটক হয়েছে মাত্র দেড় শ জন।

 

এর আগে করোনার কারণে ২০২০ সালের মার্চ থেকে অক্টোবর পর্যন্ত সুন্দরবনে বন্ধ ছিল পর্যটকের ভ্রমণ। এরপর ওই বছরের নভেম্বর পুনরায় সুন্দরবন দর্শনার্থীদের জন্য উম্মুক্ত করা হয় স্বাস্থ্য বিধি মানাসহ নানা শর্তে। সে সব শর্ত মেনেই যাতায়াত অব্যাহত ছিল পর্যটক ও পর্যটন ব্যবসায়ীদের। গত ২০১৯ সালের জুলাই থেকে ২০২০ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত এ পর্যটকদের দিয়ে বন বিভাগের আয় হয়েছিল প্রায় ১৫ লাখ টাকা। আর ২০২০ সালের মার্চ থেকে অক্টোবর পর্যন্ত বন্ধ থাকার পর ওই বছরের নভেম্বর থেকে চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত বন বিভাগের আয় হয়েছে প্রায় আট লাখ টাকা।

 

করমজল বন্যপ্রাণী ও পর্যটন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আজাদ কবির বলেন, শুক্রবারের পর থেকে পর্যটকদের আনোগোনা কমে গেছে। মূলত করোনার প্রকোপ বাড়াতে প্রশাসনের কঠোর ভূমিকা ও আক্রান্ত হ্য়ার আশঙ্কায় লোকজন আসা কমে গেছে।

 

তিনি আরো বলেন, সন্ধ্যায় ডিএফও স্যার ফোন করে পর্যটনকেন্দ্র বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

 

পূর্ব সুন্দরবনের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন বলেন, পর্যটকদের সুন্দরবন ভ্রমণের ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের নির্দেশে সব পর্যটনকেন্দ্র বন্ধ রাখার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com