ছাত্রলীগের পদ প্রত্যাখান করলেন জাওয়াদ-মুহিব

প্রকাশিত: ৭:৪৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১২, ২০২১

ছাত্রলীগের পদ প্রত্যাখান করলেন জাওয়াদ-মুহিব

নিজস্ব প্রতিবেদক : সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণার পরপরই পদ প্রত্যাখ্যান করেন কেন্দ্রীয় সদস্য পদ পাওয়া দুই নেতা। তারা হলেন- ছাত্রলীগ নেতা জাওয়াদ ইবনে জাহিদ খান ও মুহিবুর রহমান মুহিব। মাত্র দুই সদস্যের কমিটি আরও ৪ জনকে কেন্দ্রীয় সদস্য করে দেয়া কমিটির পরপরই পদত্যাগ করলেন তারা।

 

এর আগে মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে দীর্ঘ অপেক্ষার পর সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

 

জেলা ছাত্রলীগের নাজমুল হোসেনকে সভাপতি ও রাহেল সিরাজকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। এছাড়া সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের নতুন কমিটিতে কিশওয়ার জাহান সৌরভকে সভাপতি ও নাইম আহমদকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়।

 

এদিকে, সিলেট ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষিত কমিটি প্রত্যাখ্যান করে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন দলের একাংশের নেতাকর্মীরা। এছাড়াও নগরীর চৌহাট্টা পয়েন্টে গিয়ে বিক্ষোভকারী নেতাকর্মীরা টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করেন। কিছু সময় সড়ক অবরোধ শেষে ফিরে যান তারা।


।আরও পড়ুন


জয় ও লেখক স্বাক্ষরিত ছাত্রলীগের প্যাডে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছাড়াও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হিসেবে জাওয়াদ ইবনে জাহিদ খান, বিপ্লব কান্তি দাস, মুহিবুর রহমান মুহিব, কনক পাল অরুপের নাম ঘোষণা করা হয়।

 

মঙ্গলবার দুপুরে লেখক ভট্টাচার্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নতুন কমিটির ঘোষিত প্যাডটি আপলোড দেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, আগামী সাত দিনের মধ্যে আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হবে।

 

এদিকে, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য মুহিবুর রহমান মুহিব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে এই পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন। তিনি তার স্ট্যাটাসে লিখেছেন, “আমাকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সদস্য করায় আমি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সম্মানিত সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের কাছে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আমি ব্যক্তিগতভাবে বিশ্বাস করি, আমি এই বিশাল পদের যোগ্য নই। তাই, আমি স্বেচ্ছায় এই পদ থেকে অব্যাহতি নিলাম।”

 

অপরদিকে, পদ পত্যাখান করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জাওয়াদ ইবনে জাহিদ খান লেখেন, “প্রিয় সতীর্থ, সহযোদ্ধা শুভাকাঙ্খী সদ্য ঘোষিত বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানতে পারলাম আমাকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য মনোনীত করা হয়েছে। আমি উক্ত সদস্য পদ প্রত্যাখ্যান করলাম। রাজনীতি থেকে যখন অপ রাজনীতি শক্তিশালী হয়ে যায় তখন আমার মতো কর্মীর কাছে প্রত্যাখ্যান করার ছাড়া বিকল্প কোন উপায় থাকে না।”

 

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com