শহরে আসলেই পাওয়া যায় স্বর্ণের বার!

প্রকাশিত: ৫:৩৯ অপরাহ্ণ, মে ২, ২০২১

শহরে আসলেই পাওয়া যায় স্বর্ণের বার!

সুরমা মেইল ডেস্ক : একদিকে লকডাউন অন্যদিকে রমজান মাস মানুষ কিভাবে দিন কাটাচ্ছে একমাত্র আল্লাহ ভালো জানেন। কোন ভাবে জীবন পার করছেন খেয়ে না খেয়ে তবুও ছেলে মেয়েকে একটু ঈদ আনন্দ দেয়ার জন্য কেউবা ধার করে কেউবা আবার বাড়ির গরু, ছাগল বিক্রি করে পরিবারের ছেলে মেয়ের মুখে হাসিখুশি রাখতে গিয়ে শপিং মহলসহ বিভিন্ন কাপরের দোকানে যাওয়ার পথে ছিনতাইকারীদের কবলে পরে সর্বশ্ব হারিয়ে খালি হাতে ঘরে ফিরতে হচ্ছে অনেকের। আবার অনেকে মার্কেটে জিনিসপত্র ক্রয় করে দেখেন পকেট থেকে টাকা নিয়ে গিয়েছে পকেটচুর। কেউ আবার জিনিসপত্র ক্রয় করে বাড়ি যাওয়ার পথে বড় বেগ দেখেই ছিনতাইকারীরা নিয়ে যাচ্ছে।

 

বর্তমান এমন পরিস্থিতিতে রাতে আবার বাড়িতে ও ভয়ে রয়েছেন অনেকে ডাকাতরা হয়তো কখন ঘরে ডুকে সব কিছু নিয়ে যায়।

 

আবার আরেক শ্রেণীর ছিনতাইকারী সিন্ডিকেট রয়েছে এরা থাকে ৪ থেকে ৫ জন, প্রথমে ১ জন রিক্সা চালাবে অন্য জন রিক্সার উঠে বসবে বাকি ৩ জন একটু দূর দূর রাস্তার পাশ দিয়ে হাটবে, এদের এমন ভাব এরা আগে থেকে কেউ কাউকে চিনেনা, ঐ ৩ জনের ভিতরে ১ জন হটাৎ একটা বাজ করা কাগজ ফেলবে রাস্তার পথচারীকে টার্গেট করে, আগে থেকেই ফেলবে গ্রাম থেকে আসা মানুষ হলে তাদের আর কোন জামেলা পোহাতে হয়না তাই তারা টার্গেট করে গ্রামের মানুষদের, ঐ কাগজে কিছু লেখা থাকে একজন হিন্দু বাবুর নাম দিয়ে চিঠি, ২ ভরি ওজনের স্বর্ণের বার হটাৎ করে পেয়ে গ্রামের মানুষটি ও বনে যায় বোকা। শহরে রাস্তায় ও সোনা ফেলে যায় এবার তাদের মধ্য ১ জন পেয়ে পথচারীকে দেখাবে এটা কি ভাই তিনিও দেখলেন সোনার বার এটি আমাকে দিয়ে দাও তখনি দামাদামি শুরু দুজন হেটে এসে বলবে কি কি পেয়েছো এটা ভাই তখনি ৩ জনের ভিতরে কে কত দিয়ে কিনে নিবে জুরে গেলো তর্ক। এমন সময় রিক্সা থেকে নেমে তাদের ১ম সহযোগী বলবে টিক কেউ নিতে হবে না মুরব্বি সেজে বলবে প্রথমে যে দাম করেছেন আপনি নিয়ে যান। উনার উচিত মুল্য দিয়ে তিনি মহা-খুশিতে বাড়িতে ফোন দিয়ে বিকাশেও টাকা আনিয়ে তাদের ভুয়া সোনার বার সোনা মনে করে কিনে নিচ্ছেন। বাড়িতে গিয়েই দেখেন এটি পিতল হয়ে গেছে এটা আসলেই পিতলের চামচ দিয়ে সোনার দোকান থেকে বার বানিয়ে অভিনব কায়দায় বাটপারি-চিটারি করে সর্বশান্ত করেছে নিরিহ মানুষদের এই ছিনতাইকারী সিন্ডিকেট।

 

তাই আমরা সিলেটের প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার নিকট আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি এই সিন্ডিকেট চক্রের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Flag Counter

আমাদের ভিজিটর সংখ্যা

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com