সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যাশা করি: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১:৩৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৫

সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যাশা করি: প্রধানমন্ত্রী

hasina30

সুরমা মেইলঃপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা বাংলাদেশকে একটি প্রগতিশীল, শান্তিপূর্ণ এবং সমৃদ্ধশালী দেশ গড়ার প্রত্যাশা করি। প্রযুক্তি এবং উন্নয়ন ও জলবায়ু চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাংলাদেশের জন্য ব্যাপক সমর্থন প্রয়োজন। বাংলাদেশে বিশেষ করে স্বাস্থ্য, কৃষি, জ্বালানি ও পরিবহনের মতো সেক্টরগুলোতে পরিবেশ উপযোগী প্রযুক্তি প্রয়োজন।

জাতিসংঘ সদর দফতরে মঙ্গলবার আয়োজিত এমডিজি ও এসডিজি’র উপর এক উচ্চপর্যায়ের আলোচনা অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। ৭০তম জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের পাশাপাশি বাংলাদেশের উদ্যোগে এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী এ বছরের জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে গৃহীত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য (এসডিজি)-২০৩০কে একটি সম্মিলিত যাত্রা হিসেবে বর্ণনা করে বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এটি বাস্তবায়নের উপায় খুঁজে বের করতে হবে। এসডিজি বাস্তবায়নের জন্য সরকারি ও বেসরকারি এবং অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনসহ সকল উৎস থেকে আমাদেরকে সম্পদ সংগ্রহ করার প্রয়োজন হবে। অন্যথায় ওডিএ’র লক্ষ্য পূরণ করতে শুরু থেকেই খুবই সমস্যা হবে।

শেখ হাসিনা বলেছেন, এমজিডি অর্জনের মতো এসডিজি’ও অর্জন করে বাংলাদেশ আরো একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। এই যাত্রায় কেউ পিছু হটবে না। আমরা বাংলাদেশকে একটি প্রগতিশীল, শান্তিপূর্ণ এবং সমৃদ্ধশালী দেশ গড়ার প্রত্যাশা করি।

অনুষ্ঠানে নেদারল্যান্ডের রাজা উইলিয়াম আলোক্সান্ডার, বেনিন প্রজাতন্ত্রের প্রেসিডেন্টবোনি ইয়া’ই, সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী স্টীফ্যান এল ফেভেন, সাধারণ পরিষদের প্রেসিডেন্ট মোগেনস লেকেটোফট, ইউএনডিপি’র প্রশাসক মিস হেলেন ক্লার্ক, ইউএন আন্ডার সেক্রেটারী জেনারেল এবং জাতিসংঘ মহাসচিবের প্রতিনিধি গায়ান চন্দ্র আচারিয়া এবং বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্টের বিশেষ দূত মাহমুদ মহিউদ্দিন বক্তব্য রাখেন।

প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে একটি উন্নয়ন বিস্ময় দেশ হিসেবে উল্লেখ করায় বিশ্ব নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, বাংলাদেশে অনেক উন্নয়নশীল দেশের তুলনায় অনেক বেশি অগ্রগতি হয়েছে। অনেক উন্নয়ন চিন্তাবিদদের ধারণা বাংলাদেশ ভুল প্রমাণিত করেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com